Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

পানিতে ১৩ কোটি টাকা!

নাঙ্গলকোট (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১২ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

নাঙ্গলকোটে উপজেলা মডেল মসজিদ
উপজেলা পর্যায়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তত্বাবধনে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত সরকারের দৃষ্টি নন্দন কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ কর্তৃপক্ষের নজরদারির আভাবে ভয়ংকর ঝুঁকিতে পড়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণ মতে, নাঙ্গলকোট উপজেলা প্রশাসনের সম্মুখেই নাঙ্গলকোটের মেগা প্রকল্প সমূহের অন্যতম উপজেলা ভিত্তিক ১টি দৃষ্টি নন্দন উপজেলা মডেল মসজিদ। ১২কোটি ৫৭ লাখ ৮৭হাজার ২শত ৪১ টাকা ব্যয়ে মসজিদটির কাজের শুরুতে শুভঙ্করের ফাঁকি দিয়ে দায়সারা ভাবে দ্রুত নির্মাণ কাজ সম্পাদনের চেষ্টা চলছে।

মসজিদের নির্ধারিত স্থানটি উপজেলা ডাক বাংলার পুকুর। মসজিদ নির্মাণের সংবাদে একটি দুবৃত্ত চক্র রাতে রাতে প্রায় দুই লাখ গণফুট বালু উত্তোলন করে ফেলে ওই পুকুর থেকে।

পরবর্তীতে ঠিকাদার এম.এস জাহের এন্ড লিটন ট্রেডার্স নির্মাণ কাজ শুরু করতে বড় ধরনের সমস্যায় পড়ে। এক পর্যায়ে পুকুরের চার পাশের মাটি এক যোগে ভাঙন দেখা দিলে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বিপদে পড়ে যান। বর্তমানে শীত মওসুমের সুবাদে পুকুরটি পুরোদমে সেচ দিলেও নীচ থেকে পানি উঠতে থাকায় আরসিসি পিলার ফ্লাট র্ফম ঢালাই দিতে পারছেন না, ফলে পানিতে যাওয়ার উপক্রম দেখা দিয়েছে পুরো প্রকল্প।
এরই মধ্যে পুকুর পাড়ের বড় বড় গাছ গুলো পুকুরে হেলে পড়ায় সে গুলোকে ফাইল করে অনেকটা বালির বাঁধ দিয়ে দুটি পিলার ফ্লাট র্ফম ঢালাই দিয়ে বাকী গুলোর প্রক্রিয়ার নিদারুন চেষ্টা চলছে। উল্লেখ্য, ৩০ ফুট গভীর পুকুরে ত্রিতল মসজিদও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণে কসরত চালায়। স্থানীয় অধিবাসী উপজেলা প্রশাসন অবাক নয়নে দেখভাল করছেন। নির্মাণ শ্রমিকরা কাজ রেখে পালিয়ে গেলেও নতুন নতুন শ্রমিকের আগমনে চলছে ঝুঁকিপূর্ণ নির্মাণ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কোটি টাকা

১২ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ