Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

থমকে গিয়েছে ভারতের কূটনীতি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ মার্চ, ২০২০, ৩:২২ পিএম

একেই অভ্যন্তরীণ রাজনীতির জেরে আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের ভাবমূর্তি সামলাতে হিমসিম খাচ্ছে নরেন্দ্র মোদির সরকার। তার উপরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে বিভিন্ন দেশের সাথে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে কূটনৈতিক সম্পর্ক। একের পর এক সফর বাতিল হওয়ার পর এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞেরা।

প্রায় চার মাস আগে থেকে নির্ধারিত ছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্রাসেলস সফর। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে ভারতের বহু প্রতীক্ষিত শীর্ষ বৈঠকটিতে এক দিকে দেশের ঝিমিয়ে পড়া অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার একটা সুযোগ পাওয়া যেত। ইউরোপ থেকে বিনিয়োগ টানা এবং ইউরোপের বিভিন্ন রাষ্ট্রে রফতানি বাড়ানো তাই আলোচ্যসূচির অন্যতম বিষয় ছিল। পাশাপাশি সিএএ এবং এনআরসি-র জেরে ইউরোপীয় পার্লামেন্টে যে উষ্মা প্রকাশ্যে চলে এসেছিল, প্রস্তাবিত সফরে মুখোমুখি বসে তার নিরসন করার একটা সুযোগও ছিল নরেন্দ্র মোদীদির সামনে। কিন্তু কবে এই সফর হবে তা আপাতত ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জানা নেই।

পাশাপাশি পাঁচ বছর পরে বাংলাদেশ সফরের পরিকল্পনাও চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল মোদির। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে গত সপ্তাহেই বলা হয়েছিল, দু’দেশের মধ্যে বন্দর এবং জলপথ ব্যবহার নিয়ে নতুন এক উদ্যোগ শুরু হতে চলেছে মোদির ঢাকা সফরে। বঙ্গোপসাগর এবং ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যা ভারতের কাছে বাণিজ্যিক এবং কৌশলগত ভাবে লাভজনক। কিন্তু করোনা তাতে বাদ সাধল।

আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আটকে গিয়েছে করোনার জেরে। মোদি এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শীর্ষ বৈঠকে হাতে কলমে যেটুকু পাওয়া গিয়েছিল তা প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রেই। মার্কিন সমরাস্ত্র কেনা এবং অন্য ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা বাড়ানোর যে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয় শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকে, তা বাস্তবায়িত করতে ১৪ মার্চ ভারতে আসার কথা ছিল মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এস্পারের। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সহযোগিতা বাড়ানো নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি আফগানিস্তানে তালিবানের সঙ্গে মার্কিন শান্তি চুক্তি পরবর্তী পরিস্থিতি ও সেখানে ভারতের ভূমিকা নিয়েও আলোচনার কথা ছিল তার। কিন্তু তার সেই সফরও বাতিল হয়েছে। সূত্র: এবিপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ