Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬, ০৯ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

করোনা আতঙ্কে পাকিস্তান ছাড়ছেন ইংলিশ ক্রিকেটাররা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ মার্চ, ২০২০, ৭:৫৪ পিএম

বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক করোনাভাইরাসের প্রভাব এবার পড়েছে পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল)। তাই তো করোনা আতঙ্কে পাকিস্তান ছাড়ছেন পিএসএলে বিভিন্ন দলের হয়ে খেলা ইংলিশ ক্রিকেটাররা। এবারই প্রথম ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছে পিএসএল। যদিও এই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে সবার শঙ্কা নিরাপত্তা নিয়ে থাকলেও ঠিকমতই এগিয়ে চলছিল পিএসএল। কিন্তু মাঝপথে আয়োজকরা হোঁচট খেলেন। সব শঙ্কা ছাপিয়ে এখন তাদের ভাবিয়ে তুলেছে করোনাভাইরাস! সারা বিশ্বের মতো পিএসএলেও আতঙ্ক ছড়াচ্ছে এই ভাইরাস। যে কারণে টুর্নামেন্টের মাঝপথেই পাকিস্তান ছেড়ে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। বলা যায় পালাচ্ছেন তারা। তাদের মনে ভয়, যদি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তারা আর দেশে ফিরতে না পারেন!

করোনাভাইরাস যাতে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সে কারণে এক দেশ থেকে অন্য দেশের ফ্লাইট বাতিল হচ্ছে। ফলে এমন অবস্থায় বেশ দুশ্চিন্তায় আছেন পিএসএলে খেলতে আসা ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। এবারের পিএসএলে ১৫ জন ইংলিশ ক্রিকেটার খেলছেন। যত দ্রæত সম্ভব তাদের সবাই দেশে ফিরতে চান। করোনাভাইরাস অধিকমাত্রায় ছড়িয়ে পড়লে দেশে ফিরতে ঝামেলা হতে পারে ভেবেই তারা পাকিস্তান ছাড়তে চাইছেন। এ তাািলকায় আছেন- মঈন আলী, জেসন রয়, জেমস ভিন্স, অ্যালেক্স হেলস, ক্রিস জর্ডান। এরা পিএসএল ছেড়ে ইংল্যান্ডে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইতোমধ্যে। তথ্যটি শুক্রবার নিশ্চিত করেছে যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম ‘ডেইলি মেইল’। তারা জানায়, শনিবারের মধ্যেই ইংল্যান্ডে ফিরে যাবেন ইংলিশ ক্রিকেটাররা। যদি তাই হয় তবে ইংলিশদের দেখাদেখি অন্য দেশের ক্রিকেটাররাও যে পাকিস্তান ছাড়বেন, এটা প্রায় নিশ্চিত।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আক্রমণ থেকে কোনোভাবেই রক্ষা করা যাচ্ছে না বিশ্বব্যাপী খেলার জগতকে। দর্শকশূন্য মাঠে ম্যাচ আয়োজন করেও যেন শঙ্কা কিছুতেই কাটছে না। বাধ্য হয়েই অনেক দেশ সব ধরনের খেলা বন্ধ করে দিয়েছে। স্থগিত করা হয়েছে বেশ কিছু স্বনামধন্য টুর্নামেন্ট। যদিও পিএসএল এখনো স্থগিত হয়নি। এখনো গ্রæপপর্বের চার ম্যাচ বাকি। এরপর প্লে-অফ পর্বে তিনটি ও ফাইনাল মিলিয়ে মোট আট ম্যাচ বাকি আছে। যে কোনো আসরের শেষ ম্যাচগুলোতেই টুর্নামেন্টের মুল আকর্ষণ থাকে। কিন্তু ইংলিশ ক্রিকেটারদের পাকিস্তান ছেড়ে যাওয়ার খবরে রং হারাচ্ছে পিএসএল।

এদিকে আগামী ৩ এপ্রিল পাকিস্তানে স্বাগতিকদের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ দল। পরে ৫ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত দু’দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা একমাত্র টেস্ট ম্যাচ। এই সূচী আগের। তবে করোনাভাইরাসের আতঙ্কে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার ওয়ানডে এবং টেস্ট সূচী শেষ পর্যন্ত ঠিক থাকে কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বা পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) সরাসরি কিছু জানায়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট


আরও
আরও পড়ুন