Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

গাণিতিক জ্ঞান অর্জনের আহ্বান ভিসির

ঢাবিতে আন্তর্জাতিক গণিত দিবস পালিত

বিশ্বিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম

‘সর্বক্ষেত্রে গণিত’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক গণিত দিবস। গতকাল শনিবার সকালে বাংলাদেশ গণিত সমিতির উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের এএফ মুজিবুর রহমান গণিত ভবনে ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান এই দিবসের উদ্বোধন করেন। দিবসের কর্মসূচি থেকে প্রগতিশীল সমাজ গড়ার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের গাণিতিক জ্ঞান অর্জনের আহ্বান জানানো হয়। বাংলাদেশ গণিত সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. নূরুল আলম খান, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মো. শওকাত আলী, আন্তর্জাতিক গণিত দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মো. শহীদুল ইসলাম প্রমুখ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

গণিতকে বিজ্ঞানের ভাষা উল্লেখ করে ঢাবি ভিসি বলেন, সহজভাবে উপস্থাপনের মাধ্যমে গণিতকে নতুন প্রজন্মের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে হবে। বিজ্ঞানভিত্তিক প্রগতিশীল সমাজ গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের অবশ্যই গাণিতিক জ্ঞান অর্জন করতে হবে। এধরণের কর্মসূচি মানব সভ্যতার উন্নয়নে কাজ করার ক্ষেত্রে গবেষক ও গণিতবিদদের জন্য একটি কমন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

কর্মসূচির অংশ হিসেবে দিনব্যাপী সেমিনার এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে গণিত প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বিশিষ্ট গণিতবিদ মুনিবুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে ছয়টি বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন দেশের সেরা ছয়জন গণিতবিদ। সেমিনারে ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে গণিত’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, ‘বাস্তব জীবনে গণিতের ব্যবহার’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রফেসর ড. মো. আবদুল আলীম, ‘প্রকৌশলীদের জন্য গণিত’ শীর্ষক প্রবন্ধ একই বিভাগের উপস্থাপন করেন প্রফেসর ড. আবদুল হাকিম খান, ‘চিকিৎসা বিজ্ঞানে গণিতের ভূমিকা’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাবি গণিত বিভাগের সহযোগী প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান এবং ‘গণিতের সৌন্দর্য’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন একই বিভাগের সহযোগী প্রফেসর মো. কুতুব উদ্দিন।

সমিতির সভাপতি প্রফেসর নূরুল আলম খানের সভাপতিত্বে সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে ফ্রান্সের উপ-রাষ্ট্রদূত ফ্র্যাঙ্ক গ্রাটজম্যাচার টকুর্ট। বিশেষ অতিথি ছিলেন গণিতবিদ প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেন। ফ্র্যাঙ্ক গ্রাটজম্যাচার টকুর্ট বলেন, বর্তমান প্রজন্মও তাদের পূর্বপুরুষদের মতো গণিতে মেধার স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছে। এটা আমাদের জন্য আশার কথা। ২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের একজন গণিতবিদ ড. নাসিমুন্নাহার গণিতে অবদান রাখায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেন। বক্তব্য শেষে প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্রেস্ট ও সনদ বিতরণ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভিসির


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ