Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা, স্যানিটাইজার ব্যবহারের পরামর্শ, করোনায় আতঙ্কিত আইএসও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০২০, ৫:১৫ পিএম

নোভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপে ‘বৈশ্বিক মহামারী’ দেখে দিয়েছে। তা নিয়ে এ বার উদ্বেগ ধরা পড়ল পশ্চিম এশিয়ার জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) ভেতরেও। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে কী ভাবে রক্ষা পাওয়া যাবে, তা নিয়ে বিশেষ নির্দেশিকা জারি করেছে তারা, যাতে সংগঠনের সদস্য এবং অনুগামীরা ‘নিরাপদে’ থাকে।

সম্প্রতি নিজেদের সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘আল নাবা’ প্রকাশ করেছে আইএস, সোশ্যাল মিডিয়া সূত্রে যা সামনে এসেছে। তাতেই নোভেল করোনা নিয়ে সংগঠনের সদস্য এবং অনুগামীদের সতর্ক করা হয়েছে। বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ থেকে রক্ষা পেতে গেলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে ঘন ঘন হাত ধুতে হবে। এমনকি মাঝ রাতে ঘুম ভেঙে গেলে যদি পানির পিপাসা পায়, সে ক্ষেত্রেও কমপক্ষে তিন বার হাত ধোওয়া উচিত।

এ ছাড়াও, হাঁচি-কাশি এবং হাই তোলার সময় মুখ ঢেকে রাখতে হবে বলে অনুগামী এবং সদস্যদের পরামর্শ দিয়েছে আইএস নেতৃত্ব। সংগঠনের সদস্যদের বিদেশ ভ্রমণেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, এখন যা পরিস্থিতি, তাতে করোনা আক্রান্ত দেশগুলিতে পা না রাখাই উচিত। আবার কেউ যদি আক্রান্ত হয়ে যাকে, তাকেও সংশ্লিষ্ট দেশ ছেড়ে বাইরে কোথাও না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তবে সচেতন থাকার পাশাপাশি সমর্থকদের আল্লাহুর প্রতি আস্থা রাখতেও বলা হয়েছে ওই নির্দেশিকায়। আইএস-এর দাবি, আল্লাহুর মর্জি ছাড়া কিছু ঘটে না এই দুনিয়ায়। এমন পরিস্থিতিতে তার উপর থেকে আস্থা হারানো চলবে না। তিনি যাদের বেছে নিয়েছেন, তাদের শরীরেই কোভিড-১৯ ভাইরাস বাসা বেঁধেছে। সামনে বাঘ-সিংহ দেখলে মানুষ যে ভাবে দৌড়ে পালায়, করোনা আক্রান্ত দেখলে তাদেরও সে ভাবে পালানো উচিত বলে সমর্থকদের উদ্দেশে বার্তা দিয়েছে আইএস।

নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারা বিশ্বে এখনও পর্যন্ত সাড়ে ৫ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দেড় লাখ। ইরাক-ইরান সহ পশ্চিম এশিয়ার বিভিন্ন দেশেও দ্রুত ছড়াচ্ছে প্রাণঘাতী এই কোভিড-১৯ ভাইরাস। ইরাকে এখনও পর্যন্ত ৭৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সিরিয়ায় ঠিক কত জন আক্রান্ত তা এখনও নির্দিষ্ট ভাবে জানা যায়নি। সেই পরিস্থিতিতেই সমর্থক এবং সদস্যদের সুরক্ষিত থাকার পরামর্শ আইএস নেতৃত্বের। সূত্র: ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইএস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ