Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

লিনের ব্যাটে শেষ চারে লাহোর

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাসের আক্রমণে যেখানে থমকে গেছে বিশ্ব ক্রীড়া ইভেন্ট, সেখানে স্বস্তির পরশ যোগাচ্ছে পাকিস্তান প্রিমিয়ার লিগ (পিএসএল)। যদিও বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দর্শকশূণ্য মাঠে খেলা চালিয়ে যাওয়া ঘোষণা দিয়েছিল পিসিবি। কমানো হয়েছে একটি ম্যাচও। গতকাল গ্রæপপর্বের শেষ দিনে প্রথম ম্যাচে ক্রিস লিনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে সবার আগে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা মুলতান সুলতান্সের বিপক্ষে ৯ উইকেটের বড় জয় তুলে নিয়েছে লাহোর কালান্দার্স। এই জয়ে সব সমীকরণ পাশ কাটিয়ে সোহেল আকতারের দল প্রথমবারের মত বুঝে নিল শেষ চারের মূল্যবান টিকিট। মুলতানের ১৮৬ রান ৭ বল হাতে রেখেই পাড়ি দেয় লাহোর।

দশ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে সবার উপরে মুলতান। এক ম্যাচ কম খেলা করাচি কিংস ১১ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। ১০ পয়েন্ট নিয়ে লাহোর উঠে এসেছে পরের অবস্থানে। পেশোয়ার জালমি ৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে চারে। দশ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। তবে ইতিমধ্যেই টুর্নামেনট্ট থেকে ঝড়ে পরেছে তারা। সবার শেষে থাকা কোয়েটা নয় ম্যাচে অর্জন করেছে ৭ পয়েন্ট। তবে নেট রান রেটে (-১.০৫২) পিছিয়ে থাকায় গ্রæপপর্বের শেষ ম্যাচ জিতলেও চারে থাকা পেশোয়ারকে ছাপিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। পেশোয়ারের নেট রান রেট (-০.০৫৫)।

এরআগে গতকাল লাহোরের জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে মুলতানকে ব্যাট করতে পাঠান লাহোর অধিনায়ক সোহেল খান। শুরুতেই দুই ওপেনার মঈন আলি (১) ও জিশান আশরাফকে (২) দ্রæত ফিরিয়ে দিয়ে দুর্দান্ত সূচনা করেছিল দলটি। কিন্তু এরপর অধিনায়ক শান মাসুদ ও রবি বোপারার ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় মুলতান। মাসুদ ৪২ রানে ডেভিডউয়াইসের বলে বোল্ড হয়ে ফিরলে ভেঙে যায় জুটি। তবে খুশদিল শাহের হার না মানা ২৯ বলে ৭০ রানের সুবাদে ১৮৬ রানের বড় সংগ্রহ পায় তারা। শাহিন শাহ আফ্রিদি ও ডেভিড উয়াইস দুটি করে উইকেট নেন। এছাড়া মোহাম্মদ হাফিজ পান একটি উইকেট।

রান তাড়ায় বড় সংগ্রহ একবারে মামুলি হয়ে যায় ফখর জামান ও ক্রিস লিনের ব্যাটে। উদ্বোধনী জুটিতে ১০০ রান তুলে ফখর (৫৭) ফিরে গেলেও ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন লিন। ৫৫ বলে ১১৩ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন এই বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। সোহল করেন ১৯ রান। একমাত্র উইকেটটি লাভ করেন উসমান কাদির।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পিসিবি


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ