Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি হচ্ছে

কর্মশালায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, সরকারের একার পক্ষে এদেশের বিশাল জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা একটি চ্যালেঞ্জ। গতকাল রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ইফেকটিভ পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ ইন হেলথ সেক্টর অফ বাংলাদেশ শীর্ষক জাতীয় কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন। স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ইউরোপীয়ান ইউনিয়ন সাপোর্ট টু হেলথ এন্ড নিউট্রিশন টু দ্য পুওর অফ বাংলাদেশ প্রকল্পের কার্যক্রম নিয়ে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।
মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতে এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় শীঘ্রই পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করা হবে। ফলে নগর এলাকায় দরিদ্র ও ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।সময়ের সাথে সাথে অনেক কিছুর পরিবর্তন হচ্ছে। গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা দেয়া হচ্ছে। সিটি কর্পোরেশন ও পৌর এলাকা গুলোতেও যাতে সাধারণ মানুষ প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্যসেবা নিতে পারে সে লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে।
মন্ত্রী বলেন, দেশের সকলকে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের দায়িত্ব ম‚লত আমাদের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের হলেও স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন ২০০৯ ও স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন, ২০০৯ অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাকেক স্ব স্ব অধিক্ষেত্রে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বর্তমানে সিটি কর্পোরেশন প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের দায়িত্ব পালন করছে। বাংলাদেশে জাতীয়ভাবে মাতৃমৃত্যু ও শিশু মৃত্যু রোধ, টিকাদান কর্মসূচি ইত্যাদিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমরা অনেক সাফল্য পেয়েছি এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন স্বীকৃতি পেয়েছি।
মন্ত্রী বলেন, গ্রামাঞ্চলের তুলনায় শহরাঞ্চলে সকল জনগোষ্ঠীর জন্য প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে আমরা একটু পিছিয়ে আছি। শহর এলাকায় জনসংখ্যার ক্রমবর্ধমান চাপের আমাদের স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলো স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পানি ও পয়ঃনিষ্কাষণ প্রভৃতি সেবাম‚লক কাজের জন্য যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হচ্ছে। আমরা ধারণা করতে পারি, আগামী ১০ বছরের মধ্যে দেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেক শহরে বাস করবে। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমাদের সকলকে যথাযথ প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসম‚হকে আরও শক্তিশালী ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে।
স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ডেলিগেশনের মিনিস্টার কাউন্সিলর এন্ড হেড অব কোন্ডঅপারেশন মাওরিজিও সিয়ান , স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অমিতাভ সরকার এবং প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মেজবাহ উদ্দিন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্বাস্থ্যসেবা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ