Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পশ্চিমবঙ্গে মহামারী আইন জারি, সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২০, ৬:৩২ পিএম

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সোমবার এপিডেমিক ডিজিজেস অ্যাক্ট জারি করল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্যই এই আইন জারি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিন করোনাভাইরাস নিয়ে নবান্নে ‘রিভিউ’ বৈঠক শেষে মমতা জানান, সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসাবে রাজ্যের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঠিক একই ভাবে রাজ্যের সমস্ত প্রেক্ষাগৃহ, অডিটোরিয়াম ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এর আগে গত শনিবার রাজ্য সরকার ৩১ মার্চ পর্যন্ত সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল। তিনি বলেন, ‘আমরা সবাইকে অনুরোধ করছি আতঙ্কিত না হতে, কিন্তু সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা হিসাবেই এই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’ তিনি এ দিন চীনে কী ভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল সেই পরিসংখ্যান দেখিয়ে জানান, সতর্কতা নেয়া প্রয়োজন। তিনি বলেন, ‘এখন এখানে ছড়ায়নি বলে আমরা অসতর্ক হতে পারি না।’

তিনি জানিয়েছেন, রাজ্যে করোনারভাইরাস প্রতিরোধের জন্য ২০০ কোটি টাকার তহবিল গড়া হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তার জন্য ২ লাখ পিপিই (পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট) সংগ্রহ করা হয়েছে। সঙ্গে কেনা হচ্ছে ২ লাখ মাস্ক। কেনা হচ্ছে আরও থার্মাল গানও। এখন পর্যন্ত ১৩ টি রাজ্য সরকার এই মহামারী আইন বলবৎ করেছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রথমে ভেবেছিলাম যে, ওই আইন জারি করব না। কিন্তু আজ সকালে আইসোলেশনে থাকা ১০ জন উত্তর ২৪ পরগণার জেলাশাসককে যে ভাবে বিরক্ত করেছেন এবং চিকিৎসা না করিয়ে চলে যেতে চেয়েছেন, তার পর এই আইন জারি করতে বাধ্য হচ্ছি।’ সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পশ্চিমবঙ্গ


আরও
আরও পড়ুন