Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী

পাকুন্দিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়িঘর ভাঙচুর : লুটপাট

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় পূর্ব শত্রচতার জের ধরে বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট, মারধর ও আগুন দেয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এ সময় প্রতিপক্ষের মারধরে এক নারীসহ তিনজন আহত হয়েছে। গত বুধবার দুপুরে উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়নের কোদালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে কোদালিয়া গ্রামের মফিজ উদ্দিন বাদী হয়ে পাকুন্দিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
জানা যায়, বিভিন্ন বিষয়কে কেন্দ্র করে উপজেলার কোদালিয়া গ্রামে আবদুস ছাত্তার গ্রæপ ও মফিজ উদ্দিনের গ্রæপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। এরই জের ধরে বুধবার দুপুরে আবদুস ছাত্তারের ১০/১২জন লোক দেশীয় অস্ত্র, লোহার রড ও লাঠিসোটা নিয়ে পাশ্ববর্তী মফিজ উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে একটি টিনের ঘর ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় তারা ঘরে ঢুকে নগদ ১ লাখ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ একটি কম্পিউটার লুট করে নিয়ে যায়। ভাঙচুর ঠেকাতে গেলে মফিজ উদ্দিন, গোলাপ মিয়া ও হাসনা আক্তারকে কুপিয়ে ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে প্রতিপক্ষের লোকজন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পরে আহতদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়।
পাকুন্দিয়া থানার ওসি মো. মফিজুর রহমান সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বাড়িঘর


আরও
আরও পড়ুন