Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে এমপিদের শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসূচী স্থগিত

বিশেষ অধিবেশন স্থগিতের দাবি বিএনপি’র

পঞ্চায়েত হাবিব | প্রকাশের সময় : ২২ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। পরিস্থিতির কারণে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসূচী স্থগিত করা হয়েছে। তবে বঙ্গবন্ধু’র জন্ম শতবার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন বসার সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিত রয়েছে। আগামীকাল রোববার বেলা ১১টায় এই অধিবেশন বসবে। কিন্তু বিরোধী দল বিএনপি’র পক্ষ থেকে এই অধিবেশন স্থগিত করে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় আরো গুরুত্ব দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে বছরব্যাপী কর্মসূচী নেওয়া হয়েছে। কর্মসূচীর অংশ হিসেবে প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদ ২২ মার্চ সংসদের বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করেছেন। ওই দিন অধিবেশন শুরুর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সংসদ সদস্যদের শ্রদ্ধা নিবেদনের কর্মসূচীও নেওয়া হয়। এর আগে ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু’র জন্মদিনে আলোকসজ্জা ও লেজার শোর মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া এই কর্মসূচী ১৯ মার্চ সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার কথা ছিলো। কিন্তু আগেই ১৯ মার্চের শিশু মেলাসহ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন এবং ২৪ মার্চের সংসদ সদস্যদের সাইকেল র‌্যালীর কর্মসূচী স্থগিত করা হয়। সর্বশেষ ২২ মার্চ শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসূচী স্থগিত করা হয়েছে। তবে সংসদের বিশেষ অধিবেশন রোববার বেলা ১১টায় যথারীতি বসবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের পরিচালক (গণসংযোগ) তারিক মাহমুদ ইনকিলাবকে বলেন, মুজিববর্ষ-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে ২২ মার্চ বিশেষ অধিবেশন শুরুপূর্বে সকাল সাড়ে ৯টায় প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও সংসদ সদস্যদের ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের অনুষ্ঠানটি অনিবার্য কারণবশতঃ স্থগিত করা হয়েছে। এদিকে শুধু শ্রদ্ধা নিবেদন নয়, জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন স্থগিতের দাবি জানিয়েছে বিএনপিবিএনপি’র সংসদীয় দলের নেতা মো. হারুনুর রশীদ ইনকিলাবে বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে যেখানে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য জনসমাগম এড়িয়ে চলতে বলা হচ্ছে। সরকারি দল তাদের সভা-সমাবেশ স্থগিত করছে। মুজিববর্ষের অনুষ্ঠান স্বল্প পরিসরে পালন করা হলো। এমনকি জাতিসংঘের অধিবেশনও এক সপ্তাহের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। সেখানে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন অনুষ্ঠানের কোন যুক্তি নেই। তিনি বলেন, আমরা চাই করোনার প্রভাব কমে আসলে সুবিধাজনক সময়ে বিশেষ অধিবেশন করা যেতে পারে। তখন আমরা প্রেসিডেন্টের ভাষনের ওপর আলোচনা করবো। এবিষয়ে সংসদ নেতা শেখ হাসিনা ও স্পিকারের যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিশেষ অধিবেশনের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এই অধিবেশনকে স্মরণীয় রাখতে বিশেষ আলোচনার প্রস্তুতি চলছে। অধিবেশনে বিদেশী অতিথিরা না আসলেও বিদেশী কূটনীতিকসহ দুই শতাধিক প্রতিনিধি অংশ নিবেন। অধিবেশনের শুরুতে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের উপর স্মারক বক্তব্য রাখবেন।এরপর সাধারণ আলোচনার জন্য কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ বিধিতে প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে। দুই দিনে ১২ থেকে ১৪ ঘন্টা সাধারণ আলোচনার পর প্রস্তাব গ্রহণ করা হবে।
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, সরকারী দলের পাশাপাশি বিএনপিসহ বিরোধী অন্যান্য দলের সদস্যদের সাধারণ আলোচনায় অংশগ্রহণের সুযোগ রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, মহান এই নেতা সম্পর্কে কে কি বিষয়ে আলোচনা করবেন সেটা সংসদ থেকে নির্ধারণ করে দেওয়া হবে। যাতে একই বক্তব্য বারবার না আসে। আলোচনায় বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সরাসরি যারা ছিলেন এমন নেতাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। বঙ্গবন্ধুর পুরোটাই যাতে আলোচনায় উঠে আসে সেদিকে খেয়াল রেখেই আলোচনা হবে। এই আলোচনার মাধ্যমে বিশ্ববাসীসহ আগামীর প্রজন্ম বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বঙ্গবন্ধু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ