Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কলাপাড়ায় ভূয়া ডাক্তার র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার

কলাপাড়া(পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ মার্চ, ২০২০, ৯:০১ পিএম

র‌্যাব-৮ সিপিসি-১ পটুয়াখালী ক্যাম্প’র একটি বিশেষ আভিযানিক দল শুক্রবার শেষ বিকেলে কলাপাড়া উপজেলার মহিপুর থানাধীন আলীপুর কলেজ রোডে মেসার্স মনোয়ারা মেডিকেল হলে অভিযান পরিচালনা করে এসএম আ. ছালাম নামে এক ভূয়া ডাক্তারকে আটক করেছে। কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন এর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে আটক ভ’য়া চিকিৎসক এসএম আ. ছালাম (৫১), পিতা- খুলনার বটিয়াঘাটা থানার সুরখালি ইউনিয়নের গাওঘোরা গ্রামের মৃত শেখ আ. লতিফ এর পুত্র। অভিযানকালে কুয়াকাটা ২০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার জনাব ডাঃ আরিফুর রহমান উপস্থিত থেকে আটককৃত ব্যক্তিকে ভূয়া ডাক্তার হিসেবে সনাক্ত করেন।

র‌্যাব সূত্র জানায়, আটককৃত এসএম আ. ছালাম খুলনা বি এল কলেজ থেকে অর্থনীতিতে মাস্টার্স করে দীর্ঘ ১৩ বছর রেনেটা নামক ওষুধ কোম্পানীতে এরিয়া ম্যানেজার হিসেবে চাকরি শেষে বিগত ৭ বছর যাবত বিশেষজ্ঞ ডাক্তার হিসেবে চিকিৎসা করে আসছেন। তিনি পটুয়াখালীর মহিপুর লতাচাপলী ইউনিয়নের মিশ্রিপাড়া গ্রামে বসবাস করছেন। এসএম আ. ছালাম চিকিৎসা শাস্ত্রে কোন প্রকার পেশাধারী ডিগ্রী অর্জন না করেও নিজেকে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন ধরনের জটিল ও কঠিন রোগের চিকিৎসা করে থাকেন।

কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন জানান, আটককৃত ব্যক্তিকে মহিপুর থানায় হস্তান্তর করা হবে। এ ব্যাপারে র‌্যাব বাদী হয়ে ধৃত ভূয়া ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কলাপাড়ায় ভূয়া ডাক্তার র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার
আরও পড়ুন