Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

পুঁজিবাজারে সূচক ও লেনদেন কমেছে

২৯ মার্চ থেকে লেনদেন বন্ধ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০২০, ৬:২৮ পিএম

শেয়ারবাজারের পতন থামাতে চালু করা নতুন সার্কিট ব্রেকারের কারণে শেয়ারবাজারে লেনদেনে খরা দেখা দিয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের পরিমাণ ২০০ কোটি টাকার নিচে নেমে গেছে। একই সঙ্গে পতন হয়েছে সূচকের। অব্যাহত দরপতনের হাত থেকে শেয়ারবাজার রক্ষা করতে গত বৃহস্পতিবার নতুন সার্কিট ব্রেকার চালু করা হয়। এদিকে ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত শেয়ারবাজারের লেনদেন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ারের লেনদেন শুরু হবে শেষ পাঁচ কার্যদিবসের ক্লোজিং প্রাইসের গড় মূল্য দিয়ে। এর নিচে কোনো কোম্পানির শেয়ার দাম নামতে পারবে না। তবে দাম বাড়ার সীমা আগের মতোই থাকবে। সার্কিট ব্রেকারের নতুন এ নিয়মের কারণে শেয়ারের দাম নির্দিষ্ট সীমার নিচে নামতে না পারায় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম অপরিবর্তিত থাকছে। গতকাল ডিএসই লেনদেনে অংশ নেয়া ২৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮৫টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪২টির।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম অপরিবর্তিত থাকলেও দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় আট পয়েন্ট কমে ৩ হাজার ৯৭৬ পয়েন্টে দাড়িয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ কমেছে দশমিক শূন্য তিন পয়েন্ট। আর ডিএসই শরিয়াহ্ কমেছে এক পয়েন্ট।

সূচক কমার পাশাপাশি ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর লেনদেন হয়েছে ১৩৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ২৫৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ১১৪ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই আগের দিনের তুলনায় কমেছে ২১ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৮১ কোটি ৯১ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ১৬২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২২টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৩৭টির। আর ১০৩টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিকে আগামী ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত শেয়ারবাজারে লেনদেন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। ডিএসই জানিয়েছে, দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার অংশ হিসেবে সরকার ২৯ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত ডিএসই’র ট্রেডিং, সেটেলমেন্ট কার্যক্রমসহ সব দাপ্তরিক কাজ বন্ধ থাকবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুঁজি বাজার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ