Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

আজ দিকনির্দেশনামূলক ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:০৯ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দেশবাসীর উদ্দেশ্যে দিকনির্দেশনামূলক ভাষণ দেবেন। দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দুর্যোগ পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তায় সেনাবাহিনী নামানো, সাধারণ ছুটি ঘোষণা, নিম্ন আয়ের মানুষকে নানাভাবে সহায়তা, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ের ব্যাপারে বর্তমান সরকার সর্বাত্মক প্রস্তুতি, খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূূর্ণ বিষয় তাঁর ভাষণে থাকবে। গতকাল মঙ্গলবার গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব ড. আহমদ কায়কাউস এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় যেসব দিক নির্দেশনা থাকা দরকার, জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে সেই করণীয় সম্পর্কে জাতিকে জানাবেন। মুখ্যসচিব বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রীর ১০ নির্দেশে কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমরা ছুটি ভোগ করতে বলেছি করোনা প্রতিরোধ করার জন্য। আমরা এই ছুটি উৎসব করার জন্য দিইনি।

ড. আহমেদ কায়কাউস বলেন, মাঠ পর্যায়ে প্রশাসনকে সহায়তা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নিদেশে সেনাবাহিনী কাজ শরু করেছে। বেসরকারি অফিসও বন্ধ থাকবে। খোলা থাকবে হাসপাতাল, জরুরি সেবা, কাঁচাবাজার ও ওষুধের দোকান। এছাড়া গণপরিবহন চলাচল সীমিত থাকবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কার্যক্রম সীমিত আকারে চালু থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় যা যা করার সবই করছে সরকার। প্রত্যেক জেলা প্রশাসককে সংশ্লিষ্ট জেলার দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইতিপূর্বে স্কুল-কলেজ-মাদরাসাসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণার পর দেখা গেছে অনেক পরিবার ছেলেমেয়েদের নিয়ে বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে গেছেন। সাধারণ ছুটি মানে সরাসরি আইসোলেশন না হলেও নিজেকে পৃথক রেখে অন্যকে আক্রান্ত হওয়া থেকে রক্ষা করার ব্যবস্থা। এ সময়ে যদি কোনো অফিস-আদালতে প্রয়োজনীয় কাজকর্ম করতে হয় তাহলে তাদের অনলাইনে সম্পাদন করতে হবে। সরকারি অফিস সময়ের মধ্যে যারা প্রয়োজন মনে করবে তারাই শুধু অফিস খোলা রাখবে।

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার সময় সরকারের পদক্ষেপ গ্রহণ ও কি রূপরেখা দেবেন সে সম্পর্কে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল গতকাল ইনকিবলাবকে ধারণা দিয়েছেন। তিনি জানান, জেলা প্রশাসকরা মুক্ত বাজার বিক্রয় (ওএমএস) এর মাধ্যমে ছাড়ের মূল্যে চাল বিক্রি করার তদারকি করবেন এবং সেনাবাহিনী সহযোগিতা করবে। মুস্তফা কামাল বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে এই বিষয়গুলিতে কাজ শুরু করেছে।

দিনমজুর, রিকশা চালক ও রাস্তার বিক্রেতারাসহ নিম্ন আয়ের গোষ্ঠীর মুখোমুখি অর্থনৈতিক সংকট দূর করার প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে, সরকার সারা দেশে ওএমএসের মাধ্যমে প্রতি কেজি ৫০ টাকায় চাল বিক্রির পরিকল্পনা করছে, ৩০ টাকা থেকে কমিয়ে বর্তমানে এক কেজি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, ৩ মার্চ পর্যন্ত সরকারের স্টোরেজ সুবিধায় ১ ১৭.৫১ লক্ষ টন চাল ও গম রয়েছে। পরিমাণের মধ্যে, ধানের পরিমাণ ১৪.২৯ লক্ষ টন এবং গম ৩.২২ লক্ষ টন।

গণপরিবহন চলাচল সীমিততের মধ্যে যারা জরুরি প্রয়োজনে গণপরিবহন ব্যবহার করবে তাদের অবশ্যই করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়া থেকে মুক্ত থাকতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। গাড়ি চালক ও সহকারীদের গøাভস এবং মাস্ক পরাসহ পর্যাপ্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। জনগণের প্রয়োজন বিবেচনায় ছুটিকালীন বাংলাদেশ ব্যাংক সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবে।

গতকাল থেকে বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে সামাজিক দ‚রত্ব নিশ্চিতকরণ ও সতর্কতাম‚লক ব্যবস্থা গ্রহণের সুবিধার্থে সেনা বাহিনী জেলা প্রশাসনকে সহায়তায় নিয়োজিত হয়েছেন। দেশের ৬৪ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তাদের স্বস্ব জেলার প্রয়োজন অনুযায়ী সশস্ত্র বাহিনীর জেলা কমান্ডারকে রিকুইজিশন দেবে।

করোনাভাইরাসের কারণে নিম্নের কোনো ব্যক্তি যদি স্বাভাবিক জীবনযাপনে অক্ষম হয় তাহলে সরকারের যে ঘরে ফেরার কর্মসূচি রয়েছে, সে কর্মসূচির মাধ্যমে তারা নিজ নিজ গ্রামে ফিরে গিয়ে আয় বৃদ্ধির সুযোগ পাবে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকরা প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন। ভাসানচরে এক লাখ লোকের আবাসন ও জীবিকা নির্বাহের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সরকার। এ সময় যদি দরিদ্র কোন ব্যক্তি ভাসানচরে যেতে চান তাহলে তারা যেতে পারবেন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকরা প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিএমএ এর নেতৃত্বে ডাক্তারদের নিয়ে ৫শ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বদ্ধপরিকর। তিনি বৈশ্বিক এ সংকট মোকাবিলার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছেন এবং দলীয়ভাবে আমাদের পার্টিকে নির্দেশ দিয়েছেন। সচেতনতা, যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি পালন পারে ভয়াবহ সংকট থেকে মুক্তি দিতে। এই ক্রান্তিলগ্নে সবাইকে সতর্কতা, দায়িত্বশীলতা মানবিকতা ও দেশপ্রের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে। এটাকে যুদ্ধ হিসেবে গ্রহণ করে এই যুদ্ধ মোকাবিলায় যার যার দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিজের নিরাপত্তা ও জীবন রক্ষা করে অপরকে বাঁচাতে হবে। এই যুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার জন্য সবাইকে ঝাপিয়ে পড়তে হবে।



 

Show all comments
  • হোসাইন এনায়েত ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৪৯ এএম says : 0
    বর্তমাান পরিস্থিতিতে সরকার ১০ দিন একটানা বন্ধ দিয়েছে। এবার আসুন নিজ গৃহে অবস্থান করে রাস্ট্রকে মহা দূর্যোগের কবল থেকে রক্ষায় দায়িত্বশীল হই। সারা পৃথিবীতে এতবড় মহামারী আমাদের জীবদ্দশায় দেখিনি। প্রথম এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেও মানুষ এতটা শংকিত হয়নি । পরিবেশের ভারসাম্য বিনস্ট হওয়া, বনভূমি ধ্বংশ হওয়ার কারণে বণ্য প্রাণি মানুষের কাছাকাছি আসা এবং গ্লোবালাইজেশনের ফলে মানুষ দ্রুত এক মহাদেশ থেকে অন্য মহাদেশে ছড়িয়ে পরার কারণে CoVID-19 এর মতো জীবনঘাতি রোগ মানুষের পিছে ধাওয়া করছে। এসকলই প্রকৃতির শাসন। আমাদেরকে প্রতিকূল পরিবেশে বিবেক দিয়ে, বুদ্ধিমত্তা দিয়ে নিজেদের রক্ষা করতে হবে আর সৃস্টিকর্তার আনুগত্যের জন্য প্রার্থনা করতে হবে। আসুন দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে দলমত,জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলে মিলে এক সুরে কথা বলি। সরকারি নীতি নির্ধারক, ডাক্তার, সেনাবাহিনী, পুলিশবাহিনী, সাংবাদিক সবাই আমাদের পরিবারের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্যই কাজ করে যাবে ঝুঁকি নিয়ে৷ আমরা শুধু নিজেদের কাজটি করে যাবো। আর এ কাজ হলো কেবল ঘরে থাকা। সম্ভব হলে পরিবারের সাথেও নিরাপদ দূরত্বে চলা। এ বন্ধকে কোনভাবেই 'ছুটি' মনে করা যাবে না। এ বন্ধ করোনা প্রতিরোধ করার একটা সুযোগ, ছুটি নয়৷ আসুন এই ১০ দিন নিজের জন্য, নিজের সন্তান আর ভালোবাসার মানুষটির জন্য,বৃদ্ধ পিতা মাতা আর করোনামুক্ত, স্বাধীন, উচ্ছল বাংলাদেশের জন্য নিজগৃহে অবস্থান করি। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হউন ।
    Total Reply(0) Reply
  • Kamrul Islam ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    আশা ক‌রি এই নি‌র্দেশনা ও তি‌নি দি‌বেন,,,,বাংল‌া‌দে‌শের প্র‌ত্যেক সংসদ সদস্য‌দের দৃ‌ষ্টি অাকর্ষণ কর‌ছি, আপনারা নিজ নিজ এলাকায় গি‌য়ে জনগ‌নের পা‌শে দাড়া‌নোর জন্য বি‌শেষ ভা‌বে অনু‌রোধ কর‌ছি ।
    Total Reply(0) Reply
  • Imran Khan Rigan ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    আরো জোরালো পদক্ষেপ নেওয়া দরকার, এয়ারপোর্ট এখনও খোলা ক্যানো, চিৎকিসার যন্ত্রাংশ নেই। কি পদক্ষেপ নিলেন আর মাত্র ১ হাজার কোটি টাকা দিয়ে মাঙ্ক কিনবেন নাকি।
    Total Reply(0) Reply
  • Gourango Das Dev ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    গার্মেন্টস বন্ধ না করলে মহামারি সৃষ্টি হবে,করোনার,,
    Total Reply(0) Reply
  • Touhiduzzaman Akash ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    “মসজিদের মাইকে ঘোষণা করা জরুরী" করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য সকল জনসাধারনকে ঘরে থাকার অনুরোধ করে বার বার মসজিদের মাইকে ঘোষণা করা প্রয়োজন ইমাম সাহেবদের। -জনস্বার্থে তথ্য প্রচার
    Total Reply(0) Reply
  • Jashim Vin ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    এই মুহূর্তে কিছু মহৎ কাজ করতে হবে আপনাকে সারা বাংলাদেশের যত কারাবন্দি লোক আছে সবাইকে জাবিন দিন
    Total Reply(0) Reply
  • আলমগীর কবির ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    খুব সুন্দর একটি পদখেপ নিয়েছেন,তবে এটা শত জন্ম বাশিকির আগে হলে আরো ভাল হতো।।
    Total Reply(0) Reply
  • Nasir Chowdhury ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    অনুগ্রহ করে ৯০ দিন বাড়িওয়ালাদের ঘর ভাড়া বিল মওকুফ করার আদেশ জারি করুণ। এবং গরীব রিকশাওয়ালা দিনমজুর ও কৃষকদের খাবার ব্যবস্তা করার জন্য বিত্তশালীদের আদেশ করুণ।
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Hanif Rifat ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    আপার স্নেহ মমতা ও দোয়া আমার জীবনের পরম পাওয়া...আমার গর্ব আমার অহংকার আমার শেষ আশ্রয়স্থল।
    Total Reply(0) Reply
  • Pälläb Bärmön ২৫ মার্চ, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি আমরা যারা ঢাকা শহরে ঘর ভাড়া থাকি তাদের কি অবস্থা হবে. মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি একটু তাদের চিন্তা করতেন তাহলে অনেকটাই ভালো হতো l
    Total Reply(0) Reply
  • Onik islam ২৫ মার্চ, ২০২০, ৭:৫৪ এএম says : 0
    রাষ্ট্রের টাকা দিয়ে কেনো বিদেশের মতো জনগনকে জরুরি জিনিসগুলো দিয়ে সাহায্য করছে না।কেন তার নেতাগুলো বলছে যে করোনা মোকাবিলা সরকারের পক্ষে সম্ভব না।বাংলাদেশের কি অর্থের অভাব? কোটি কোটি পাচার করে নিয়ে যাচ্ছে আর নিজ দেশের মানুষের মাঝে এই দুর্দিনে দাঁড়াতে পারছে না।এখনো সময় আছে কঠোরভাবে পদক্ষেপ নিন না হয় অনেক খারাপ হয়ে যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • MD.MIJANUR RAHMAN ২৫ মার্চ, ২০২০, ৯:৩৫ এএম says : 0
    গার্মেন্টস বন্ধ না করলে মহামারি সৃষ্টি হবে আশা ক‌রি এই নি‌র্দেশনা ও তি‌নি দি‌বেন। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হউন ।
    Total Reply(0) Reply
  • Rehena ২৫ মার্চ, ২০২০, ৮:৩৮ এএম says : 0
    গার্মেন্টস বন্ধ না করলে মহামারি সৃষ্টি হবে আশা ক‌রি এই নি‌র্দেশনা ও তি‌নি দি‌বেন। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হউন ।
    Total Reply(0) Reply
  • Rehena ২৫ মার্চ, ২০২০, ৮:৪৫ এএম says : 0
    গার্মেন্টস বন্ধ না করলে মহামারি সৃষ্টি হবে আশা ক‌রি এই নি‌র্দেশনা ও তি‌নি দি‌বেন। মহান আল্লাহ আমাদের সহায় হউন ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী

২১ অক্টোবর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন