Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ১০ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

নতুন কেন্দ্র হতে পারে যুক্তরাষ্ট্র

ইস্টারের আগেই করোনা মুক্তির আশাবাদী ট্রাম্প

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

যুক্তরাষ্ট্র নভেল করোনাভাইরাস মহামারী ছড়ানোর নতুন বিশ্বকেন্দ্র হতে পারে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সতর্ক করেছে। তবে ইস্টারের আগেই যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাসমুক্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, যদিও ভাইরাসটি ‘বুলেট ট্রেনের’ চেয়ে দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন নিউইয়র্কের গভর্নর। ডব্লিউএইচওর মুখপ্রাত্র মার্গারেট হ্যারিস মঙ্গলবার রয়টার্সকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপক বেড়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ভাইরাসের নতুন কেন্দ্রে পরিণত হতে পারে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, যে হারে ভাইরাসটি ছড়াচ্ছে তাতে এই সম্ভাবনা জোরালো। বিবিসির হিসেবে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ৫৫ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, যাদের মধ্যে প্রায় ৮০০ জনের মৃত্যু হযেছে।যেখানে বিশ্বজুড়ে ৪ লাখ ২০ হাজারের বেশি আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা ১৯ হাজারের কাছে পৌঁছেছে। মঙ্গলবারের আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন আক্রান্তের ৮৫ শতাংশই ইউরোপ ও আমেরিকায়, যার মধ্যে ৪০ শতাংশই শুধু যুক্তরাষ্ট্রের বলে হিসাব দিয়েছে রয়টার্স। তবে ট্রাম্প বলেছেন, ইস্টারের আগেই করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সফল হবেন বলে তিনি আশা করেন। যুক্তরাষ্ট্রকে পুনরায় সচল করতে আগামী মাসের প্রথম দিকের সময়টাকে ‘একটি সুন্দর সময়রেখা’ হিসেবে সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেছেন তিনি। আমেরিকা মহামারীটির নতুন কেন্দ্রে পরিণত হতে পারে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করার পর তিনি এ আশাবাদী সুর শোনান। মঙ্গলবার তিনি ফক্স নিউজকে বলেন, আসছে ১২ এপ্রিল ইস্টারের আগে দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে পারে বলে তার আশা। পরে হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, তিনি ‘টানেলের শেষে আলোর বিন্দু দেখতে শুরু করেছেন’। তবে ‘নিখাদ তথ্য ও ডেটার ভিত্তিতেই’ যে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে তিনি আশ্বস্ত করেন। তবে সংক্রামক রোগ বিষয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশেষজ্ঞ ও করোনভাইরাস প্রতিরোধে একাধিক টাস্ক ফোর্সের সদস্য ডা. অ্যান্টনি ফাউসি সেখানেই বলেছেন, নিউ ইয়র্ক শহরের মতো জায়গায় যা চলছে তা দেখার পর বিষয়টিকে ছোট করে প্রকাশের সুযোগ নেই। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেভাবে লাফিয়ে-লাফিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে চীন, ইতালির পরে ট্রাম্পের দেশ মারণ ভাইরাসের নতুন ভরকেন্দ্র হতে পারে বলে সতর্ক করে দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। মঙ্গলবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মুখপাত্র মার্গারেট হ্যারিস সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রে আমরা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুতগতিতে বাড়তে দেখছি। তা থেকে আশঙ্কা করা যায় যুক্তরাষ্ট্র এই ভাইরাসের নতুন ভরকেন্দ্র হয়ে উঠতে পারে।’ যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হুঁশিয়ারিকে পাত্তাই দিতে চাননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বরং সগর্বে তিনি বলেছেন, ‘শাটডাউনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সৃষ্টি হয়নি। মার্কিন নাগরিকরা লকডাউন কি জিনিস তা জানেন না।’ অ্যামেরিকায় এর মধ্যেই করোনা পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক জায়গায় পৌঁছেছে। রয়টার্স, বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনারভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন