Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

যুবককে অপহরণ করে হত্যাচেষ্টা, আটক ৪

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক যুবককে ব্রহ্মপুত্র নদের নির্জন চরে হত্যার উদ্যেশে নিয়ে যাওয়ার সময় একদল দুর্বৃত্তকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। অপহৃত যুবক বালুচরে কৌশলে মোটরসাইকেল থেকে লাফ দিয়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় জনতা দুর্বৃত্তদের আটক করে ৯৯৯ এ ফোন করে। ঘটনাটি ঘটেছে, গত মঙ্গলবার গভীররাতে উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের পালের ঘাট নামক স্থানে। এসময় অপহৃত যুবকের মোটরসাইকেলসহ দুর্বৃত্তদের ব্যবহৃত ৩টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।
জানা গেছে, উপজেলার ধরনীবাড়ি ইউনিয়নের মাদারটারী গ্রামের ইউসুফ আলীর মেয়ে সুলতানা ওরফে ইসমোতারা বেগম (২৬) ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকরি করতো।

এসময় সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার সরাই হাজিপুর গ্রামের আফছার আলীর পুত্র রাকিবুল ইসলামের (২৭) সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরই এক পর্যায়ে তারা উভয়ের সম্মতিতে প্রায় ৩ বছর আগে বিয়ে করেন। স্ত্রী ইসমোতারা বাবার বাড়ি মাদারটারী গ্রামে আসলে গত সোমবার রাকিবুল শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসেন। গত মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে কয়েকজন দুর্বৃত্ত ইসমোতারার বাড়িতে এসে তাদের বিয়ের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে। এক পর্যায়ে দূর্বৃত্তরা জোর পূর্বক তার বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। দিনভর বিভিন্ন জায়গায় রাকিবুলকে নিয়ে ঘোরাঘুরি করে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে। এসময় দূর্বৃত্তরা রাকিবুলের কাছে ফাঁকা স্টাম্পেসই এবং ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

অপহৃত রাকিবুল জানান, মোটরসাইকেলে নিয়ে যাওয়ার সময় তারা আমাকে বলে, তোকে আজ গলা কেটে ব্রহ্মপুত্র নদে ভাসিয়ে দেব। কিভাবে বেঁচে গেলাম সে কথা ভাবতেও ভয় পাচ্ছি। উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃত ৪ জনসহ ৮ দূর্বৃত্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পর বুধবার দুপুরে আটককৃত ৪জনকে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন