Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

কক্সবাজারে ৮ উপজেলায় ৮ শ বেডের পৃথক কোয়ারেন্টাইন প্রস্তুত

৬০ জন মুক্ত, ৩২৪ জন এখনো কোয়ারেন্টাইনে

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ১:৪৮ পিএম

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কক্সবাজার জেলার ৮ উপজেলার প্রত্যকটিতে কমপক্ষে একশ’ বেড সম্পন্ন সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন প্রস্তত করা হয়েছে।

প্রতিটি উপজেলার অপেক্ষাকৃত নিরাপদ, স্বাস্থ্য ও পরিবেশসম্মত স্থানে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন প্রস্তত করার দ্রুত ভবন রিকুইজিশন দিতে ৮ উপজেলার ইউএনও-দের কাছে ইতিপূর্বে পত্র পাঠানো হয়েছিল।

২৫ মার্চ (বুধবারের) মধ্যে প্রতিটি উপজেলায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন প্রস্তত করে এব্যাপারে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জরুরীভিত্তিতে প্রেরিত উক্ত পত্রে বলা হয়েছিল, কমপক্ষে ১শ’ বেডের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইন তৈরীর জন্য এক বা একাধিক ভবন রিকুইজিশন করতে হবে। ২৫ মার্চ বুধবারের মধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইন সম্পূর্ণ প্রস্তত করতে হবে।

যেসব ব্যক্তি নির্ধারিত সময় পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকছেন না, জেলা ও উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির পরামর্শ সাপেক্ষে তাদেরকে প্রস্তুতকৃত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে স্থানান্তর করা হবে। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে থাকা ব্যক্তির খাওয়া দাওয়ার ব্যয় নিজেকেই বহন করতে হবে। তবে থাকার জন্য কোন টাকা দিতে হবেনা।

সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এর সাথে পরামর্শ করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনের সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসক, চিকিৎসা সামগ্রী ইত্যাদি নিশ্চিত করতে পত্রে বলা হয়েছে।

এদিকে সিভিলসার্জন সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাস প্রভাব পর থেকে কক্সবাজারে কোয়ারেন্টাইনে রাখা ৬০জন ইতোমধ্যে মুক্ত হয়েছেন। এই ৬০ জনের অধিকাংশই আজ বুধবার কোয়ারেন্টাইন সময় শেষ হয়েছে। অন্যদিকে আজ পর্যন্ত নতুন করে আনাসহ আরো ৩২৪জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। কক্সবাজারের সিভিল সার্জন মাহবুবুর রহমান এই তথ্য জানান।

সিভিলসার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, করোনার প্রভাব শুরুর পর থেকে প্রতিদিনই সন্দেহভাজনদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এই সংখ্যা সর্বোচ্চ দাঁড়িয়েছে ৩৮৪ জন-এ। জেলার প্রতিটি উপজেলায় ছিলো কোয়ারেন্টাইন পর্যবেক্ষণ লোকজন। এর মধ্যে অন্তত ৯০ শতাংশই প্রবাসী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ