Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

ক্রাইস্টচার্চ হামলা: সেই বন্দুকধারী দোষী সাব্যস্ত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ৬:০০ পিএম

ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে ৫১ জনকে হত্যার দায়ে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক বন্দুকধারী ব্রেনটন টারান্টকে দোষী সাব্যস্ত করেছে নিউজিল্যান্ডের আদালত। ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ ক্রাইস্টচার্চের বন্দুকধারী ব্রেনটন মসজিদে হামলা করে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) ক্রাইস্টচার্চের আদালতে আলোচিত এ মামলার শুনানি হয়। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে নিউজিল্যান্ড লকডাউন অবস্থায় রয়েছে। তাই আদালতে সাধারণ কোনো জনতাকে ঢুকতে দেয়া হয়নি। শুনানিতে টারান্ট ও তার আইনজীবীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অংশ নেন। ওই হামলা ক্ষতিগ্রস্ত দুই মসজিদের একজন প্রতিনিধি ও হত্যার শিকার এক পরিবারের প্রতিনিধি শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন। শুনানিতে ব্রেনটন টারান্ট (২৯) ৫১ জনকে হত্যার পাশাপাশি আরও ৪০ জনকে হত্যার চেষ্টার এবং সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এতদিন সে এসব অস্বীকার করে আসছিল। বিবিসি জানিয়েছে, ব্রেন্টনের বিরুদ্ধে আনীত ৯২টি অভিযোগের শাস্তি খুব শিগগিরই শোনানো হবে। এর আগে আগামী ১ মে পর্যন্ত কারাগারেই থাকতে হবে তাকে।

২০১৯ সালের ১৫ মার্চ, শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে হামলা করে ৫০ জনকে হত্যা ও অর্ধশতাধিক মুসল্লিকে আহত করেন ব্রেনটন। আহতদের মধ্যে পরে একজন মারা যান। স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর প্রথমে হামলা চালানো হয়, কিছু পরে লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় হামলা হয়। আল নুর মসজিদে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে হামলা চালানোর ঘটনাটি ফেসবুকে লাইভ স্ট্রিম করে হামলাকারী ব্রেনটন। এ ঘটনা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টি করে। পরে নিউজিল্যান্ড সরকার অস্ত্র আইনে ব্যাপক পরিবর্তন আনে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ ফেসবুকে লাইভ দিয়ে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলা চালান ব্রেনটন ট্যারান্ট। জুমার নামাজ চলাকালে মুসল্লিদের ওপর অতর্কিত এই হামলা চালান তিনি। ভিডিও গেমসের ন্যায় একের পর এক মুসল্লিকে গুলি করে সামনের দিকে অগ্রসর হতে থাকেন ব্রেন্টন। এ হামলায় ৫১ জন প্রাণ হারান। সারাবিশ্বকে গভীরভাবে নাড়া দেয় এই হামলা। এ ঘটনায় বন্দুক আইন শিথিল করতে বাধ্য হয় নিউজিল্যান্ড। সূত্র: বিবিসি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মসজিদে হামলা


আরও
আরও পড়ুন