Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬, ০৫ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

জুতায় ৫ দিনের বেশি বাঁচতে পারে করোনাভাইরাস

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ৬:৪২ পিএম

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সম্পর্কে প্রতিদিনই মিলছে নতুন তথ্য। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বারবার হাত ধোয়ার কথা বলেছেন। বিশেষজ্ঞরা ঘরের মেঝে, পরার কাপড়, বাসনকোসন এমনকি খোলা বাজার বা সুপার শপ থেকে আনা শাক-সব্জি ও যেকানো দ্রব্য উষ্ণ সাবান পানির সাহায্যে পরিষ্কার করতে পরামর্শ দিয়েছেন।
এখন প্রশ্ন উঠেছে, করোনাভাইরাস কি জুতায় থাকতে পারে? জুতা পরেই বিভিন্ন জায়গায় যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু বাসায় এসে জুতা পরিষ্কার খুব কম মানুষই করেন।
অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা বলছেন, জুতার তলায় লেগে থাকা জীবাণু হয়ে উঠতে পারে জীবননাশের কারণ। করোনা সংক্রমণ হয়নি এমন পরিবারের লোকজনও মাস্ক কিংবা সুরক্ষা স্যুট পরে বাইরে বের হলেও কেবল জুতার কারণে ঝুঁকিতে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
সংক্রামক ব্যাধি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জুতার তলায় করোনাভাইরাস ৫ দিনের বেশি বেঁচে থাকতে সক্ষম। বাড়ির বাইরে, বিশেষ করে সুপারমার্কেট, বিমানবন্দর ও গণপরিবহণে যাতায়াত করার পর জুতা বাড়ির ভেতরে নিলেই ঝুঁকি বাড়ে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জুতার তলায় সবচেয়ে বেশি জীবাণু লাগে। ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক থেকে শুরু করে ভাইরাসও বাদ যায় না। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির ড্রপলেট কিংবা হাঁচি-কাশির মাধ্যমে রাস্তায় করোনাভাইরাস পড়ে থাকলে জুতার মাধ্যমে তা ঘরে হাজির হতে পারে। জুতার তলা সচরাচর টেকসই হয় যা সাধারণত রাবার কিংবা অন্য সিনথেটিক পদার্থ দিয়ে তৈরি। প্লাস্টিকের তৈরি হলেও উচ্চমাত্রার ব্যাকটেরিয়া বহন করে। চামড়ার জুতা কেউ ধোয় না বলে তাতেও জীবাণু থেকে যায়।
বিভিন্ন দেশের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞরা এই যুক্তি সমর্থন করেছেন। সেকারণে, বাসার ভেতরে আলাদা স্যান্ডেল ব্যবহার এবং বাইরে ব্যবহৃত জুতা বাসার ভেতরে না নিয়ে ঢোকার পরামর্শ দিয়েছেন। করোনার ভয়াবহতা জানাতে সিডনির সংক্রমণ, ভ্যাকসিন এবং সংক্রমণতত্ব বিশেষজ্ঞ সহকারী অধ্যাপক টিমোথি নিউসাম নিশ্চিত করেছেন যে, করোনা মহামারীতে প্রতিটি স্থান ও বস্তুই বিপজ্জনক।
নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিনে প্রকাশিত এসংক্রান্ত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, করোনাভাইরাস ২৪ ঘণ্টা কার্ডবোর্ডে এবং স্টেইনলেস স্টিল ও প্লাস্টিকে ৩ দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। সে কারণে কমপক্ষে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহলের ব্লিচ বা অ্যালকোহল দ্রবণ ব্যবহার করে প্রায়শই স্পর্শিত স্থান যেমন কল, ফোনের কেস, দরজার হাতল, কম্পিউটার কীবোর্ড এবং টয়লেটগুলি পরিষ্কার করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।
পাশাপাশি নিয়মিতভাবে হাত ধোয়া, বারবার মুখ স্পর্শ না করা এবং হাঁচি বা কাশিতে হাতের বদলে কনুইয়ের ভাঁজ ব্যবহার করা করোনভাইরাসকে দ্রুত বিস্তারের বিরুদ্ধে সেরা প্রতিরক্ষা বলে মন্তব্য বিশেষজ্ঞদের। সূত্র : ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৩১ মার্চ, ২০২০
৩১ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন