Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬, ০৫ শাবান ১৪৪১ হিজরী

চাইনিজ বা উহান ভাইরাস না বলার আহবান চীনের

চীন করোনাভাইরাস তৈরি করেনি বা ছড়ায়নি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মার্চ, ২০২০, ১২:০৭ এএম

ইচ্ছাকৃতভাবে করোনাভাইরাস তৈরি করে বিশ্বে ছড়িয়ে দিয়েছে চীন এমন অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছেন ভারতে অবস্থিত চীনা দ‚তাবাসের মুখপাত্র জি রং। ‘চাইনিজ ভাইরাস’ বা ‘উহান ভাইরাস’ এমন নামেও ডাকা হচ্ছে ওই মারণ ভাইরাসটিকে। এই ধরনের সম্বোধনেও তীব্র আপত্তি জানালেন তিনি। ইচ্ছাকৃতভাবেই চীনের সঙ্গে ওই ভাইরাসের নাম জুড়ে দেয়া বলেই অভিযোগ তার। তিনি বলেন, বিশ্বের উচিত ‘চীনের মানুষজনকে দোষারোপ’ না করে মহামারির বিরুদ্ধে লড়তে ‘দ্রæত ব্যবস্থা’ নেয়া। এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রীতিমতো নিজেদের মধ্যে পারস্পরিক সংযোগ রেখে চলেছে ভারত ও চীন। সেই বিষয়টি তুলে ধরে চীনা দ‚তাবাসের মুখপাত্র জি রং বলেন, উভয়দেশই একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলছে এবং এই কঠিন সময়ে মহামারি মোকাবিলায় একে অপরকে সমর্থন করছে দুই দেশ। চীনা দ‚তাবাসের মুখপাত্র বলেন, ভারতের পক্ষ থেকে এই সময় চীনকে চিকিৎসা সহায়তা দেয়া হয়েছে এবং দুই দেশই এই সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াইয়ের পক্ষে সমর্থন দিয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমরা এজন্যে ভারতের প্রশংসা করি এবং ধন্যবাদ জানাই। স¤প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ডবিøউএইচও-ও জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের কেন্দ্রবিন্দু চীন বা উহান প্রদেশ নয়। সেটি তুলে ধরেই চীনা মুখপাত্র বলেন, যেসব লোকজন চীনের নামকে কলুষিত করার চেষ্টা করছেন তারা বোধহয় ভুলে যাচ্ছেন যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং মানবজাতির কল্যাণে বরাবরই চীনের মানুষ বিশাল ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তিনি আরও বলেন, চীনের উহান প্রদেশের মানুষ করোনাভাইরাসে ব্যাপকভাবে আক্রান্ত হলেও চীনই যে এই মারণ ভাইরাসের উৎসকেন্দ্র তা কিন্তু প্রমাণ হয়নি। চীন এই ভাইরাসটি মোটেই তৈরি করেনি এবং ইচ্ছাকৃতভাবে এর সংক্রমণও ঘটায়নি। তাই করোনাকে ‘চীনা ভাইরাস’ নামে ডাকা একেবারেই ভুল। এদিকে চীনে করোনা আক্রমণ কিছুটা কমলেও এখনও পুরোপুরি থেমে যায়নি। মঙ্গলবার চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ৭৮ জনের পরিসংখ্যান দিয়েছে। এর মধ্যে আবার ৭৪ জনই বিদেশ থেকে ওই ভাইরাস শরীরে বয়ে এনেছেন। অন্যদিকে আরও সাতজনের মৃত্যু হওয়ায় চীনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন হাজার ২৭৭ জনে। এনডিটিভি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৩১ মার্চ, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন