Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

অনলাইনে করোনাভাইরাস উপসর্গ পরীক্ষা : ডিএইচ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২০, ৯:০২ পিএম

কেউ করোনাভাইরাসের উপসর্গ বহন করছে কিনা, তা অনলাইনে পরীক্ষার মাধ্যমেই জানা যাবে বলে দাবি করেছে স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল হেলথকেয়ার সল্যুশন- ডিএইচ। এক মিনিটেরও কম সময়ে অনলাইনে কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে যে কেউ করোনাভাইরাস উপসর্গ পরীক্ষা করতে পারবে বলে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দাবি করেছে গ্রামীণ সোশ্যাল বিজনেসের প্রতিষ্ঠান- ডিএইচ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিনামূল্যে এই সেবা পাওয়া যাবে। https://coronachecker.dh.health/ এই ওয়েবসাইটে গিয়ে যে কেউ তার স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বর্তমান তথ্য জানিয়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকিতে রয়েছেন কিনা তা জানতে পারবেন। এই পরীক্ষার লক্ষ্য হচ্ছে, ব্যবহারকারীকে যথাযথ চিকিৎসা সেবা পেতে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করা। তবে এটি কোভিড-১৯ এর পূর্ণাঙ্গ নির্ণয় কিংবা চিকিৎসা নয় বলেও জানিয়েছে ডিএইচ।

এটি যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস), যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এবং বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ (ডিজিএইচএস) এর সর্বশেষ চিকিৎসা তথ্যের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়েছে।

সবাইকে প্রতিদিন ৪০ সেকেন্ড ব্যয় করে পরীক্ষাটি করার আহ্বান জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোনও ব্যক্তির স্বাস্থ্য পরিস্থিতি আগের দিনের মতো একই আছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া উচিত। অনলাইনের এই পরীক্ষায় ব্যবহারকারীদের অসুস্থতার স্তর নির্ধারণে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন করা হয় এবং ডিজিএইচএস ও আইইডিসিআর-এর গাইডলাইন অনুযায়ী সুপারিশসহ নির্দেশনা দেয়া হয়।

সুপারিশের মধ্যে, সরকারি হটলাইন (১৬২৩৩, ৩৩৩) এ কল করা, বাড়িতে থাকা এবং নির্দিষ্ট হাসপাতাল কিংবা হাসপাতালের আইসোলেশনে যাওয়ার পরামর্শ রয়েছে।

এছাড়াও কার্যকরভাবে হাত ধোয়া এবং কিভাবে নিরাপদ কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেসনে থাকতে হবে সে বিষয়ে স্বাস্থ্য পরামর্শ ও ভিডিও পাওয়া যাবে ওই ওয়েবসাইটে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হাসপাতালগুলোতে রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তবে তাদের বেশিরভাগই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয়। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোভিড-১৯ রোগীর হাসপাতালে যাওয়া উচিত নয় এবং নিজের বাড়িতে সেল্ফ আইসোলেশনে থাকা উচিৎ, যাতে অন্য কেউ সংক্রমিত হতে না পারে।

গত চার বছর যাবৎ ডিজিটাল মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে আসছে ডিএইচ। এর গ্রাহক সংখ্যা ৫০ লাখ বলে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন