Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

করোনা আতঙ্কেও আসছে গরু

রফিকুল হাসান রনজু, ভূরুঙ্গামারী (কুড়িগ্রাম) থেকে | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

ভূরুঙ্গামারী উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে প্রায় প্রতিদিনই রাতের আঁধারে শতশত ভারতীয় গরু ঢুকছে। এসব ভারতীয় গরু পৌঁছে যাচ্ছে উপজেলার বিভিন্ন হাটে। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত গরু ব্যবসায়ীরা ভূরুঙ্গামারীতে আসছেন গরু কিনতে। এতে গরু পাচারকারীদের মাধ্যমে ভারত থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপক সম্ভবনা দেখা দিয়েছে।
করোনার বিস্তার রোধে ইতোমধ্যে ভূরুঙ্গামারীর সোনাহাট স্থলবন্দরের কার্যক্রম আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। যাতে ভারত থেকে করোনাভাইরাসের জীবানু বাংলাদেশে আসতে না পারে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের পক্ষ থেকে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রচার-প্রচারণার পাশাপাশি বাজার মনিটরিং জোরদার করা হয়েছে। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে এখনো সীমান্ত দিয়ে গরু প্রবেশ বন্ধ হচ্ছে না।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন সীমান্তবাসী জানান, পাচারকারীদের মাধ্যমে করোনাভাইরাস ভূরুঙ্গামারীতে আসতে পারে। কেন গরু আসা বন্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না তা বোধগম্য নয়! নিশ্চয়ই কোনো স্বার্থের কারণে প্রশাসন গরু আসা বন্ধ করছে না।
করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সীমান্তগুলোতে নজরদারি বৃদ্ধির পাশাপাশি গরু আসা বন্ধ করতে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরি বলে তারা মনে করেন।
উপজেলার শালঝোর বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার আ. ছালামের বলেন, ইতোমধ্যে সীমান্তে করোনা বিষয়ক প্রচারণা করাসহ সীমান্তবাসীদের জানানো হয়েছে যে, কোনো রকম অনুপ্রবেশ লক্ষ্য করলেই তারা যেন বিষয়টি আমাদেরকে দ্রুত অবহিত করেন। এছাড়াও অনুপ্রবেশ রোধে সীমান্তে টহল জোড়দার করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ভূরুঙ্গামারী হাটবাজার কমিটির সভাপতি এ কে এম মাহমুদুর রহমান রোজেন জানান, গত বুধবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সকল প্রকার হাটবাজার বন্ধ থাকবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরুজুল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সকলকে সচেতন থাকতে হবে। সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় গরু আসা বন্ধ করার বিষয়ে সকল রকমের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে গাফিলতি পরিলক্ষিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনা


আরও
আরও পড়ুন