Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

দুই চিকিৎসকসহ আক্রান্ত আরও ৪

ধর্মীয় বিধান মেনেই লাশ দাফন করা হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

নতুন করে আরও চারজনের শরীরে করোনাভাইরাসে উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে আইইডিসিআর। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা না বাড়লেও বেড়েছে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা। নতুন চারজনসহ দেশে মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪৮ জনে দাঁড়ালো। তিনি জানান, নতুন করে যে চারজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে দু’জনই চিকিৎসক। আক্রান্তদের মধ্যে ২ জন ঢাকার এবং দু’জন ঢাকার বাইরের। আক্রান্তদের মধ্যে ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সী একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী একজন রয়েছেন। বাকীজন ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি। এই চারজনের মধ্যে দু’জন অন্য রোগে ভুগছেন। তবে, সবার অবস্থা স্থিতিশীল।

গতকাল রাজধানীর মহাখালী থেকে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে সরকারের রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআর’র পরিচালক প্রফেসর ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এসব তথ্য জানান। এক প্রশ্নের জবাবে পরিচালক জানান, ধর্মীয় বিধান মেনেই লাশ দাফন করা হচ্ছে, আক্রান্তের লাশ থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা নেই।

আইইডিসিআর’র পরিচালক সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ১০৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর এ পর্যন্ত সর্বমোট ১ হাজার ২৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর ঢাকা ছাড়াও এখন ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতেও হটলাইন নাম্বার চালু করা হয়েছে। ঢাকায় আইইডিসিআর ছাড়াও জনস্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান, শিশু হাসপাতাল ও চট্টগ্রামের ‘বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল ইনফেকশাস ডিজিসে’ করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এছাড়া, হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করছে আইইডিসিআর। এমনকি, দ্রæত নমুনা সংগ্রহ এবং নমুনার ফলাফল দ্রæত দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আগে শুধুমাত্র বিদেশ ফেরতদের নমুনা সংগ্রহ করা হলেও এখন অন্যান্য ব্যক্তিদেরও নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। আর পারসোনাল প্রটেকটিভ ইকুইপমেন্ট বা পিপিই সরবরাহ করার বিষয়ে সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, এখন পিপিই’র চাহিদা বেশি থাকায় সংগ্রহ করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে, অনেকেই পিপিই সবরাহ করতে চেয়েছেন। অনেকেই অনেকভাবে সহযোগিতা করছেন বলে উল্লেখ করেন আইইডিসিআর’র পরিচালক।
অনেক সীমাবদ্ধতা থাকা স্বত্তেও সর্বোত্তম সেবা নিশ্চিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে সবাইকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান সেব্রিনা ফ্লোরা। সামাজিক সংক্রমণের বিষয়ে সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, সীমিত আকারে কমিউনিটি সংক্রমণ হচ্ছে। তাই সবাইকে সংক্রমণ এড়ানোর নিয়ম মেনে চলতে হবে। হাঁচি-কাশি দেয়ার শিষ্টাচার মেনে চলতে হবে।
এদিকে, সারা বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে পাঁচ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃত্যু বরণ করেছে ২৪ হাজার ৮৮৭ জন। আক্রান্তের সংখ্যায় এরই মধ্যে চীন ও ইতালিকে ছাড়িয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র, দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ হাজার ছাড়িয়েছে। একদিনে রেকর্ড ১৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দেশটিতে, মৃত্যু হয়েছে প্রায় তিনশ মানুষের। ইতালি ও স্পেনে ২৪ ঘণ্টায় সাতশ’র বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়েছে।
ইউরোপের দেশ ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৭১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, ইতালিতে নতুন করে প্রাণ গেছে ৭১২ জনের। দক্ষিণ আফ্রিকা আগামী তিন সপ্তাহের জন্য লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দেশটিতে ৯শ’র বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও কেউ মারা যায়নি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর খবর জানিয়েছে কেনিয়া ও ভেনিয়াজুয়েলা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আইইডিসিআর

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ