Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

কক্সবাজারে পথচারীদের হাতে ফুল দিয়ে ঘরে ফেরাতে সেনাসদস্যদের উদ্যোগ প্রশংসিত

বিশেষ সংবাদদাতা, কক্সবাজার | প্রকাশের সময় : ২৯ মার্চ, ২০২০, ১:৩৪ পিএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে সারাদেশে এক প্রকার অঘোষিত লকডাউন চলছে। চারিদিকে আতঙ্ক। ফাঁকা রাস্তাঘাট। বন্ধ গণপরিবহণ ও দোকানপাট। জনগন স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারান্টাইনেে।

অতী প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যাওয়া পথচারীদের তাড়াতে গিয়ে পুলিশের লাঠিপেটার অভিযোগে দেশব্যাপী ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ঠিক সে সময়ে কক্সবাজারের রাস্তা-ঘাটে সেনাবাহিনীর সদস্যদের দেখাগেছে পথচারীদের হাতে ফুল দিয়ে বাড়ি ফেরার অনুরোধ করতে।

শনিবার (২৮ মার্চ) কক্সবাজার সদরের বৃহত্তর ঈদগাঁও বাজার ও বাস স্টেশনে এধরনের দৃশ্য দেখা গেছে। সেনাবাহিনীর এমন উদ্যোগকে সম্মান জানিয়ে ঘরে ফিরেছেন পথচারীরাও।

এসময় পেটের দায়ে ঈদগাঁও বাস স্টেশনে রিক্সা নিয়ে উপস্থিত ছিলেন মনিরুজ্জামান।তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর এক সদস্য আমার দিকে এগিয়ে আসতে দেখে ভয়ে আমার হাত পা কাঁপছিল। কিন্তু সেনা সদস্য আমাকে হাতে ফুল দিয়ে সাহস যোগিয়ে বললেন চাচা,ভয় নেই। যদি সম্ভব হয় বাড়ি থেকে একটু কম বের হবেন।

রিক্সা চালক মনিরুজ্জামান বলেন, গরিবের প্রতি সেনাবাহিনীর এমন ভালোবাসা দেখে আমার চোখে পানি চলে আসে। আমি সেনা সদস্যদের সম্মান জানাতে সঙ্গে সঙ্গে রিক্সা নিয়ে বাড়ি ফিরে আসি। অনেকেই তার মত বাড়ি ফিরে গেছে বলে জানান তিনি।

আলা উদ্দীন নামে আরেক পথচারী বলেন, ঈদগাঁও বাস স্টেশনে সেনাবাহিনীর গাড়ি দেখে আমি দৌড়ে পালাচ্ছিলাম। এমন সময় এহাসান নামের এক সেনাসদস্য গাড়ি থেকে নেমে পথচারীদের ফুল দিতে দেখে আমি তার দিকে এগিয়ে গেলে আমার হাতেও ফুল ধরিয়ে দেন তিনি। আলাউদ্দিন বলেন, পথচারীদের সবার হাতে ফুল দিয়ে সেনাবাহিনীর সদস্যরা করোনা ভাইরাস সম্পর্কে অবগত করছেন। একই সঙ্গে বিনা কারনে বাজারে ঘুরাঘুরি না করে বাড়িতে অবস্থান করার অনুরোধ জানাচ্ছেন সেনা সদস্যরা।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পথচারীদের ফুল দেয়ার ছবি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। ফেইবুক ব্যবহারকারিদের অনেকই সেনাবাহিনীকে স্যালুট জানিয়ে-পুলিশকেও লাঠিপেটা না করে একই পথ অনুসরণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৬ জুন, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ