Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

৬৪ জেলায় নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

আজ ভিডিও কনফারেন্স

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:০০ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে চলমান কার্যক্রম সমন্বয় করতে আজ ৬৪টি জেলার সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করবেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সকাল ১০টায় এই ভিডিও কনফারেন্স শুরু হবে এবং ৬৪টি জেলার কর্মকর্তারা এই ভিডিও কনফারেন্সের সঙ্গে সংযুক্ত হবেন।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাজ্যের যুবরাজ চার্লস করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে এই প্রাণঘাতী রোগ মোকাবেলায় যুক্তরাজ্যের সঙ্গে কাজ করার বাংলাদেশের অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

গতকাল এক পত্রে বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ বন্ধু যুবরাজ চার্লসের গতিশীল নেতৃত্বের ভুয়সী প্রশংসা করেন। শেখ হাসিনা বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং আমাদের অভিন্ন ঐতিহ্য ও পরিবেশ রক্ষায় আমি সব সময় আপনার ব্যক্তিগত মহত্ব এবং প্রাতিষ্ঠানিক নেতৃত্বের প্রশংসা করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি যুবরাজের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছেন। তিনি বলেন, করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে এক সাথে কাজ করতে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে। শেখ হাসিনা করোনাভাইরাসে বাংলাদেশের পরিস্থিতি এবং এর প্রতিরোধে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে যুবরাজকে অবহিত করেন। তিনি বলেন, আমাদের সরকার একেবারে প্রাথমিক পর্যায় থেকেই কঠোর প্রতিরোধ ব্যবস্থাসহ দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে বিমান বন্দরে আগত যাত্রীদের স্ক্রিনিং এবং বিমান বন্দরের কাছে কোয়ারেন্টাইন এলাকায় তাদেরকে রাখার ব্যবস্থা। জানুয়ারির প্রথম থেকেই এ ব্যবস্থা নেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি ব্যক্তিগতভাবে বহুপ্রতীক্ষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে গৃহীত সকল উৎসব উদযাপন ও সমাবেশ স্থগিত করেছেন। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। জনগণকে ঘরে রাখতে ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা যুবরাজ চার্লসের পূর্ণ আরোগ্য এবং যুক্তরাজ্যের জনগণের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।



 

Show all comments
  • Rabiul Islam ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৪৯ এএম says : 0
    COVID-19সহ সকল রোগ নির্ণয়কারী মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ( টেকনিশিয়ান নয়) দের ১২ বছর ধরে নিয়োগ বন্ধ ফলে সকল হাসপাতালে রোগ নির্ণয় সেবা ব্যাহত হচ্ছে। অপরদিকে গ্রাজুয়েট ( বিএসসি) মেডিকেল টেকনোলজিস্ট দের কোন পদ সৃষ্টি হয়নি স্বাস্হ্য অধিদপ্তরের উদাসিনতার কারণে। সরকার প্রচুর টাকা খরচ করে গ্রাজুয়েট মেডিকেল টেকনোলজিস্ট তৈরি করছে জনগণের আধুনিক ও উন্নত রোগ নির্ণয় সেবা নিশ্চিত করতে। তাই গ্রাজুয়েট ও ডিপ্লোমা উভয়ই মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেয়া উচিত নতুবা দেশের রোগ নির্ণয় ব্যবস্হা ভেঙ্গে পড়বে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mouri Moni ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৪৯ এএম says : 0
    ঢাকার বিভিন্ন এলাকার বস্তিগুলোতে এদের বসবাস সেখানে গিয়ে তাদের মাসিক সদাই দিয়ে আসা উচিত ৷
    Total Reply(0) Reply
  • Tazmul Islam Tazu ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    সামনের একমাস আমাদের জন্য কী অবস্থা প্রতীক্ষা করছে, তা ঈশ্বর ই জানেন। করোনা যেমন তেমন না খেয়েই মরতে হবে গরীব বেচারিদের!
    Total Reply(0) Reply
  • Rohel Nawsher ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৫০ এএম says : 0
    এটা বাংলাদেশ ফ্রি খাবার গরিবের ভাগ্যে খুব কমই জোটে। না খেয়ে গরিবদের মেড়ে ফেলা এটা একটা উন্নতমো পন্থা। খাবার দিতে পারে না একবেলা। প্রশাসন দিয়ে শাসন চালায় তিনবেলা। এই দেশে গরিব হয়ে বেঁচে থাকা মানেই " দাসত্ব "
    Total Reply(0) Reply
  • Md Shagor Mridha ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে যদি হাজার হাজার কোটি টাকাও বরাদ্দ দেওয়া হয় আমি মনে করি সাধারণ জনগণ একটা টাকাও পাবে না কারণটা আশা করি সবাই জানেন
    Total Reply(0) Reply
  • Faisal Biplob ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৫১ এএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ সুনির্দিষ্ট দিক-নির্দেশনা জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মহোদয়কে শ্রদ্ধা আল্লাহতালা তাআলা সুস্থতা এবং দীর্ঘায়ু দান করুক এ দোয়া প্রার্থনা করছি ইনশাল্লাহ আমরা সকলে নির্দেশনা মেনে চলবো একে অপরকে সহযোগিতা করব এবং সচেতনতা করার জন্য চেষ্টা এটা বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব এবং কর্তব্য আল্লাহ সর্বশক্তিমান আল্লাহ তা'আলা আমাদেরকে করোনাভাইরাস যুদ্ধে জয়ী করবে ইনশাআল্লাহ এবং বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল মানবজাতিকে করোনাভাইরাস হইতে হেফাজত করেন আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Tafazzal Hossain Hossain ৩১ মার্চ, ২০২০, ১২:৫২ এএম says : 0
    করোনার ঝুঁকি থেকে বাঁচতে ঘরও পরিষ্কার রাখা জরুরি। এমন পরিস্থিতিতে বাড়ির টেলিভিশন, রিমোট, রান্নাঘর, আলমারি, ফ্রিজ, সমস্ত দরজার হ্যান্ডল, কল, সুইচ বোর্ড, ফোন, চাদর, বালিশের কভার ইত্যাদি পরিষ্কার করার দিকে অতিরিক্ত মনোযোগ দেওয়া উচিত। ঘর পরিষ্কারের জন্য কিছু বিষয় অনুসরণ করতে পারেন। যেমন- ১. করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে ঘরে ফিনাইল এবং লিক্যুইড ব্লীচ (সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট) ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য কিছুটা ব্লীচে পরিমাণমতো পানি দিয়ে দুই থেকে চার মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর গ্লাভস পরে যে জায়গাটি পরিষ্কার করতে চান সেখানে এটি ছড়িয়ে দিন। প্রায় ১৫ মিনিট অপেক্ষা করার পর, পরিষ্কার কাপড়ের সাহায্যে জায়গাটি মুছুন। ২. রান্নাঘরের থালা বাসন পরিষ্কার করতে গরম পানি ব্যবহার করতে পারেন। গরম পানি দিয়ে জীবাণু ধ্বংস করা সহজ হয়। রান্নাঘর ব্যবহৃত কাপড় গরম পানিতে পরিষ্কার করা উচিত। এটি সম্পূর্ণ শুকানোর পরে তা ব্যবহার করুন। ৩. বাড়িতে যদি কোনও ব্যক্তি অসুস্থ থাকে তবে তার কাপড়টি আলাদা করে ধোবেন। তার কাপড়গুলি ধুয়ে নেওয়ার পরে সেগুলি ডেটল পানিতে ভিজিয়ে তারপর তা শুকাতে পারেন। ঘরের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করার আগে সবসময় মুখ, হাত এবং মাথা ঢেকে নিন। পরিষ্কার করার সময় আপনার চোখ, নাক এবং মুখে স্পর্শ করা এড়িয়ে চলুন। পরিষ্কারের জন্য যেকোনও কাপড় বা ফেলে দেওয়া কাপড় ব্যবহার করুন। কাজ শেষ হওয়ার পরে এগুলি ভাল করে ধুয়ে শুকিয়ে দিন। কাজ শেষে ভালো করে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন।
    Total Reply(0) Reply
  • ash ৩১ মার্চ, ২০২০, ৪:৪৬ এএম says : 0
    BANGLADESH E JEKHANE TEST, TEST, TEST KORA WICHITH GONO HARE, SHEKHANE MATRO 9 SHO KOTOJONER TEST KORA HOESE !
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রধানমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ