Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের উদ্যোগে নাটোরে করোনা চিকিৎসায় আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০২০, ৫:৩৯ পিএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে আমজাদ খান চৌধুরী মেমোরিয়াল হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত করেছে প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ। নাটোর সদরের চাঁদপুরে অবস্থিত আমজাদ খান চৌধুরী মোমোরিয়াল হাসপাতাল সংলগ্ন এই আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসক ও নার্সেরা ২৪ ঘন্টা রোগীদের সেবা দেবেন।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল বলেন, আমাদের আইসোলেশন ইউনিটটি স্থাপনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। রোগীদের বিনামূল্যে আমরা চিকিৎসা সেবা দিব। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে অনুমোদন চেয়ে একটি চিঠি দেয়া হয়েছে। আশা করছি এ সপ্তাহের মধ্যে অনুমোদনটি পেয়ে যাব।

তিনি বলেন, এই দুর্যোগ মোকাবেলায় আমদের এখন প্রয়োজন চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ ও মনোবল চাঙ্গা রাখা। যেসব দেশ করোনা মোকাবেলায় সফল হয়েছে সেসব দেশ থেকে কিছু সংখ্যক অভিজ্ঞ চিকিৎসক, নার্স ও টেকনিশয়ানদের এনে আমাদের দেশের চিকিৎসক এবং সংশ্লিষ্ট সকলের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা এবং তাদের অভিজ্ঞতাগুলোকে শেয়ার করার মাধ্যমে আমাদের লোকদের উদ্বুদ্ধ করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন।

আমজাদ খান চৌধুরী মেমোরিয়াল হাসপাতালের সমন্বয়কারী ডা. রাজিব উল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণের জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় হাসপাতালের একটি ভবনে আইসোলেশন ইউনিট খোলা হয়েছে। হাসপাতালের মেডিসিনসহ কয়েকটি বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে গঠিত টিম ২৪ ঘন্টা রোগীদের সেবা দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। এজন্য তাদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। জেলা সিভিল সার্জনের পরামর্শে এই আইসোলশন ইউনিট পরিচালিত হবে। এজন্য প্রাথমিকভাবে ২০টি শয্যা প্রস্তুত করা হয়েছে। এছাড়া গুরুতর রোগীদের জন্য রয়েছে আইসিইউ সুবিধা।

তিনি বলেন, আমারা রোগীদের কয়েকটি পরিস্থিতি যাচাই করে ভর্তি করবো। তাদের সেবার জন্য যেসব সরঞ্জাম দরকার সেগুলো আমরা এরই মধ্যে ব্যবস্থা করেছি। চিকিৎসক ও ডাক্তাদের জন্যও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নেয়া হয়েছে। এই ইউনিটটি পৃথক বিল্ডিং এ হওয়ায় হাসপাতালে অন্য রোগীদের চিকিৎসা সেবা যথারীতি চলবে।



 

Show all comments
  • *হতদরিদ্র দীনমজুর কহে* ৩১ মার্চ, ২০২০, ৭:০৮ পিএম says : 0
    রাষ্টসেবা প্রাতিষ্ঠানিকসেবা ব্যাক্তিসেবা এখন খুবই প্রয়োজন।শুধু সরকারের দিকে তাকিয়ে থাকলেই চলবেনা।বিত্তশালীদের ও এগিয়ে আসতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • *হতদরিদ্র দীনমজুর কহে* ৩১ মার্চ, ২০২০, ৭:১৪ পিএম says : 0
    জীবনের সকল সুখ-স্বপ্ন কিনে নাও অতি অল্পদামে,জীবনটা উৎস্বর্গ্ করে দাও সমাজ সেবা আর মানব কল্যানে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৬ জুন, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ