Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

টেকনাফে বনে ৩ কিলোমিটারের ৯ স্থানে আগুন জ¦লছে

মুহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান, টেকনাফ থেকে | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০০ এএম

কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার সংরক্ষিত পাহাড়ি বনের ৯টি স্থানে আগুন দেয়া হয়েছে, যা নাশকতা বলে ধারণা করা হচ্ছে। আগুন নেভাতে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ, স্থানীয় লোকজন, বন বিভাগ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ স্থানীয় লোকজন চেষ্টা চালাচ্ছে। এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কেউ হতাহত হয়নি।
মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে টেকনাফের পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকার পাহাড়ি বনে এ ঘটনা ঘটে।
বন বিভাগ ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বিকেল ৫টার দিকে পাহাড়ে প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকায় জুড়ে আগুন জ্বলতে শুরু করে। আগুনে শতাধিক একরের বেশি বনাঞ্চলসহ লোকলয়ে দিকে দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে হাজার হাজার গাছপালা, সবজিক্ষেত পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পায়ে হেঁটে পাহাড় পেরিয়ে ঘটনাস্থলে যেতে একটু সময় লাগছে। ফায়ার সার্ভিসের দু'টি গাড়ি ওই এলাকায় পৌঁছালেও দুর্গম পাহাড়ে উঠতে না পারায় আগুন নেভাতে সমস্যা হচ্ছে। এখনো জ¦লছে।
টেকনাফ স্টেশনের ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মুকুল কুমার নাথ বলেন, পাহাড়ে আগুন লাগার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। তারা আগুন নেভাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। লোকালয়ে ছড়িয়ে পড়া আগুন নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও পাহাড়ের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হচ্ছে। রাত ৮টা পর্যন্ত কয়েকটি স্থানের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। তবে অন্যন্য জায়গায় আগুন জ¦লছে। বাকি কয়েকটি পয়েন্টের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা ও তা আশপাশের জনবসতিতে যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সে চেষ্টাই করা হচ্ছে।
ঘটনাস্থলে আছেন টেকনাফ রেঞ্জ কর্মকর্তা আশিক আহমদ জানান- পাহাড়ের ভেতর হওয়াই ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি প্রবেশ করতে পারছে না। বনকর্মী, পাহারা সদস্য ও এলাকার শতাধিক লোকজন আগুন নেভাতে কাজ করছে। এ রাত সাড়ে ৯টায় কিছুতা নিয়ন্ত্রণ আসলে অনেক জায়গায় আগুন জ¦লছে।
টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, কারা আগুন দিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হঠাৎ করে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় লোকালয়ের কিছু অঞ্চল ঝুঁকিতে ছিল। এখনও পাহাড়ে আগুন জ্বলছে এবং তা নেভানোর চেষ্টা চলছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন