Inqilab Logo

বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

হোম কোয়ারেন্টাইন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৪৭ এএম | আপডেট : ৭:৪৫ পিএম, ১ এপ্রিল, ২০২০

দক্ষিণাঞ্চলে হোম কোয়ারেন্টিনে প্রায় ৩ হাজার
সুস্থবস্থায় শেষ করেছেন আরো দু হাজার

বরিশাল ব্যুরো
দক্ষিণাঞ্চলে সুস্থবস্থায় বুধবার পর্যন্ত প্রায় দু হাজার হোম কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন করলেও ২৪ ঘন্টায় আরো ৫০ জন সহ প্রায় ৩ হাজার কোয়ারেন্টিনে রয়েছে। বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক জানিয়েছেন বুধবার দুপুর পর্যন্ত দক্ষিণাঞ্চলের কোথাওই করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। তবে ‘কেভিড-১৯’ লক্ষন নিয়ে বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যাদের রক্তের নমুনা ইতোমধ্যেই পরিক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠান হয়েছে। এছঅড়াও ভোলা ও বরগুনা হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডের তিন রোগী সুস্থবস্থায় ঘরে ফিরেছেন।

এদিকে আগামী দিন কয়েকের মধ্যেই বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজে করোনা ভাইরাস রোগীর রক্ত পরিক্ষা সুবিধা সৃষ্টি হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই ল্যাব যন্ত্রপাতি বরিশাল পৌছার পরে তা সংযোজনের কাজও শুরু হয়েছে। টেষ্ট কিটও আজকালের মধ্যে বরিশালে পৌছবে বলে জানা গেছে।

এদিকে গত ১৫ মার্চের পরে দেশের সাথে প্রায় সব আন্তর্জতিক রুটের ফ্লাইট বন্ধের পরে এখনো প্রতিদিন নতুন নতুন প্রবাসী হোম কোয়ারিন্টিনে যূক্ত হবার বিষয়ে স্বাস্থ্য বিভাগ পরিস্কার কিছু বলতে পারেনি। নিয়মনুযায়ী বিদেশ থেকে ফেরার সাথে সাথেই ১৪ দিনের হোম কোয়ারিন্টিন বাধ্যতামূলক।

 

কুড়িগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় ৪ জনসহ হোম কোয়ারেন্টাইনে ৬৬ জন
কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা

কুড়িগ্রামে গত ২৪ ঘন্টায় ৪ জনসহ ৬৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে ২৬৯ জনের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়েছে।
স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, জেলার ৯ উপজেলায় মোট ৫৪০ জন বিদেশ ফেরত প্রবাসী এসেছে। এদের মধ্যে ৩৩৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন করতে সক্ষম হয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

বুধবার কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডাঃ হাবিবুর রহমান জানান, যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন তারা সকলে সুস্থ রয়েছেন। করোনা মোকাবেলায় প্রস্তুতি হিসেবে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষায় কুড়িগ্রাম জেলার জন্য ১৬৮৫ পিপিইসহ মাস্ক ও গেøাভস পেয়েছি। যা জেনারেল হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে বিতরণ করা হয়েছে। কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১০টি ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোতে আরো ৪০টি বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

 

সুন্দরগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টাইনে ২২৩ মুক্ত ১৭

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কল্পে ২২৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্ত হয়েছে ১৭ জন।
বুধবার বিকেলে এ তথ্য দেন উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আশরাফুজ্জামান সরকার। বিদেশ ফেরত ও তাদের সংস্পর্শে আসা ২২৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। অপরদিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৪ দিন বা তার অধিক সময় ছিলেন এরকমের ১৭ জন মুক্ত। তবুও করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষার্থে তাদের সচেতনতা ও সতর্কতামূলক নির্দেশনা মেনে চলতে হবে জানান ডাক্তার আশরাফুজ্জামান সরকার।

 

টাঙ্গাইলে নতুন করে ৩৯ জনসহ ৪২৮ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা
টাঙ্গাইলে নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় ৩৯ জনসহ বর্তমানে জেলার ১২টি উপজেলায় মোট ৪২৮ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। এর মধ্য নির্দিষ্ট মেয়াদ শেষ হওয়ায় ১১৯ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

জেলায় সর্বমোট ১৭২৪ জন বিদেশ ফেরতকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয়েছিল।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ ওয়াহীদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করে তিনি আরো জনান, জেলায় এখন পর্যন্ত কোন করোনাভাইরাস রোগী সনাক্ত হয়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হোম কোয়ারেন্টাইন

১ এপ্রিল, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ