Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৯ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

দিল্লির নিজামউদ্দিনে অংশ নেয়া লোকদের ৪৪১ জন করোনা আক্রান্ত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৪৪ পিএম

তাবলিগ জামাতের বৈশ্বিক কেন্দ্রীয় মারকাজ দিল্লির নিজামউদ্দিনে সমাবেশে অংশগ্রহণ করা ৪৪১ জনের শরীরে ইতোমধ্যে দেখা দিতে শুরু করেছে করোনার উপসর্গ। সম্প্রতি এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

এ দিন বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, নির্দেশ অমান্য করে এই ধরনের সমাবেশ চূড়ান্ত দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয়। সারা পৃথিবীতে মানুষ মরছে। সমস্ত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বন্ধ। এখানে আরও অনেক দায়িত্ব দেখানো উচিত ছিল।

ইতোমধ্যেই ৪০০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের বিভিন্ন জায়গায় কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

আশঙ্কার বিষয় হল, ওই সমাবেশে যোগ দেওয়া ৮৫ জনের এখনও খোঁজ মেলেনি। তবে, তারা এখনও দিল্লিতে লুকিয়ে আছেন বলেই মনে করা হচ্ছে। নিজামুদ্দিনের সভায় যোগ দেওয়া ব্যক্তিদের চিহ্নিত করার জন্য তেলেঙ্গানা সরকারের তরফে একটি বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে।

ওই দলের সদস্যরা ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজনকে চিহ্নিতও করেছেন। চিহ্নিত ব্যক্তিদের হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। এর মধ্যে কারও করোনা ধরা পড়লে সরকারের তরফে বিনামূল্যে চিকিৎসার বন্দোবস্ত করা হবে বলে মুখ্যমন্ত্রীর দফতর জানিয়েছে।
সেইসঙ্গে যারা দিল্লির নিজামুদ্দিন এলাকার ওই ধর্মীয় সভায় অংশ নিয়েছিলেন তাদের প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

দিল্লির নিজামুদ্দিনের যে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থেকে ব্যাপক হারে করোনাভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কা করা হচ্ছে, সেখানে অংশ নিয়েছিলেন এই রাজ্যেরও বেশ কয়েকজন মানুষ। আপাতত নিজামউদ্দিনে যাওয়া ও ফিরে এসে বাড়ির লোকেদের সংস্পর্শে এসেছেন তারা, সব মিলিয়ে সেই সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ১১৬। তাদের শনাক্ত করা হয়েছে।
তবে, নিজামুদ্দিনের সমাবেশে যাওয়া এ রাজ্যের মানুষের সংখ্যাটা ৭৩ জন বলে মনে করা হচ্ছে। তাদের প্রত্যেকেরই করোনা পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন রাজ্য সরকারের স্বরাষ্ট্রসচিব। এদের সবাইকেই চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে চলতি মাসের শুরুতে দিল্লিতে সমস্ত ধরনের বড় জমায়েত নিষিদ্ধ করে রাজ্য সরকার। কোনও ধর্মীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক বা রাজনৈতিক সমাবেশে একসঙ্গে ৫০ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

তারপরেও ধর্মীয় সংগঠন তাবলিগ জামাতের হেডকোয়ার্টার দিল্লির নিজামউদ্দিনে গত ১৩ থেকে ১৫ মার্চ এখানে একটি ধর্মীয় সমাবেশ হয়। যেখানে সব রকম সামাজিক দূরত্বের বিধিনিষেধ উড়িয়ে একসঙ্গে বাস করছিলেন কয়েকশ’ মানুষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ