Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৯ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

নওগাঁয় পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত ২

পুলিশের এসআইসহ ৪ সদস্য আহত

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৩ পিএম

নওগাঁর পতœীতলা এবং আত্রাই উপজেলায় পৃথক দুটি ঘটনায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত ও ৪জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে দুই উপজেলার পৃথক স্থানে এই দুই ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, পতœীতলা উপজেলার বালুখা এলাকার মৃত রফাতউল্লাহের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৩৮) এবং আত্রাই উপজেলার ভর তেতুঁলিয়া গ্রামের মিনহাজুল ইসলাম ওরফে মিন্টু ওরফে শিকদার (৩৬)।
নওগাঁর পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম জানান, আত্রাই উপজেলায় মিনহাজুল ইসলাম সিকদারকে গত রাতে জামগ্রাম এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ভোর রাতে উপজেলার তিলাবাদুরী গ্রামের অস্ত্র উদ্ধার করতে গেলে তার সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশের উপর গুলি চালালে পুলিশও আতœরক্ষায় পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময় হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় ও পুলিশের দুই কর্মকর্তাসহ পুলিশের ৪ সদস্য আহত হয়। আহতরা হলেনঃ এস,আই মোস্তাফিজুর রহমান, এ,এস,আই মাহবুব, কন্সষ্টেবল হালিম ও ফরিদ। এদেরকে আত্রাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন ও চারটি তাজা গুলি উদ্ধার করে পুলিশ।
অপরদিকে, জেলার পতœীতলার উপজেলার দিবরদিঘী এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলামকে গ্রেফতারের পর তার দেয়া তথ্যনুযায়ী পুলিশ বৃহষ্পতিবার ভোর রাতে মাদক উদ্ধার করতে গেলে তার সহযোগিরা পুলিশের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে জাহিদুল ইসলাম গুলিবিদ্ধ হন। তাকে উদ্ধার করে পতœীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি সুটারগান, গুলি, হাসুয়া, ৯৮৫ পিচ ইয়ারা উদ্ধার করেছে পুলিশ।
তিনি আরও জানান, নওগাঁর আত্রাই উপজেলার মিনহাজুল ইসলাম সিকদার ৪ হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি ও এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও পতœীতলা উপজেলার জাহিদুল ইসলাম ১২ মাদক মামলাসহ সরকারি কাজে বাধাসহ বিভিন্ন মামলার আসামী বলে জানান তিনি।
পৃথক ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্দুকযুদ্ধে নিহত


আরও
আরও পড়ুন