Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ৩১ মে ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৭ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সউদী-থাইল্যান্ডে করোনা ঠেকাতে কারফিউ জারি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ইসলাম ধর্মের দুই পবিত্র শহর মক্কা ও মদিনায় ২৪ ঘণ্টার জন্য কারফিউ জারি করেছে সউদী আরব কর্তৃপক্ষ। এছাড়া দাম্মাম, কাতিফ এবং তায়েফ শহরে বিকাল ৩ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। এদিকে, থাইল্যান্ডে রাত ১০ টা থেকে ভোর ৪ টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে।

এর আগে সউদী শহরগুলোতে ১৫ ঘণ্টার কারফিউ জারি করা হয়েছিল এবং মানুষকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। সেই নির্দেশই এখন দীর্ঘায়িত করা হলো। এমন সময় এই ঘোষণা এলো যখন জুলাই ও অগাস্টে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া হজ নিয়েই অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। গত সপ্তাহে সউদী আরব কর্তৃপক্ষ মহামারি নিয়ে উদ্বেগের কারণে হজ করতে ইচ্ছুকদের বুকিং পেছানোর আহ্বান জানায়। হজের সময় সারাবিশ্বের প্রায় বিশ লাখ মুসলিম মক্কা ও মদিনায় জমায়েত হন। কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঠেকানোর চেষ্টায় সউদী কর্তৃপক্ষ মানুষজনকে মক্কা ও মদিনা এবং সেইসঙ্গে রাজধানী রিয়াদেও ঢুকতে দিচ্ছে না। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে সউদী আরবে। সেখানে এখন পর্যন্ত ১,৮৮৫ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয়েছে এবং এখন পর্যন্ত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে
এদিকে, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে থাইল্যান্ডে ৩ এপ্রিল থেকে প্রতিদিন রাত ১০ টা থেকে ভোর ৪ টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। দেশটিতে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৭৫ জন ও মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের।
থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রয়ুত চ্যান ও চা এপ্রিল গত ২ এপ্রিল এই কারফিউয়ের ঘোষণা দেন। তিনি দিনের বেলা বাইরে যাওয়ার অনুমতি থাকায় অতিরিক্ত খাবার কেনা এবং মজুদ না করতে সবার প্রতি আহ্বান জানান। সরকার ফেস মাস্ক বিতরণের জন্য আউটলেট স্থাপন করার এবং আর্থিক উদ্দীপনা প্যাকেজ ঘোষণার পরিকল্পনা করেছে। এর মধ্যে রয়েছে আর্থিক সাহায্য, ঋণের কিস্তি স্থগিতকরণ এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ঋণ সহায়তা। সূত্র : বিবিসি, ম্যাশেবল এশিয়া।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

৩১ মে, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন