Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

ভারতের স্বাধীন সংবাদমাধ্যম আর স্বাধীন নয়

নিউ ইয়র্ক টাইম্স | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০২ এএম

করোনাভাইরাস মহামারীর ছুঁতোয় ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অবস্থান আরও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। পুরো দেশে লকডাউন ঘোষণা করার আগেই তিনি দেশের শীর্ষ সংবাদ নির্বাহীদের জানান যে, তার সরকারের প্রচেষ্টা সম্পর্কে ‘অনুপ্রেরমূলক এবং ইতিবাচক গল্প’ প্রকাশ করা উচিত।

সাংবাদিকদের মতে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার দেশের সুবিশাল সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেছে যা বিগত দশকগুলোর অন্য কোনো ভারতীয় নেতা করেননি। তিনি দেশের ত্রাণকর্তা হিসাবে নিজেকে এক পূজনীয় ব্যক্তিত্বে প্রতিষ্ঠা করতে সংবাদ মাধ্যমকে ব্যবহার করার চেষ্টা করেছেন এবং ধর্মীয়ভাবে বৈচিত্রময় এবং সহনশীল ভারতকে গোঁড়া হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য মোদির জাতীয়তাবাদী দলের কুৎসিত প্রচারণার দিকটিকে অগ্রাহ্য করার জন্য তার উর্ধ্বতন সরকারী কর্মকর্তারা সংবাদ মাধ্যমগুলিকে চাপ প্রয়োগ করেছেন।
জম্মু ও কাশ্মীরের মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো বড় ঘটনাগুলিও মাঝে মাঝে সরকারের ভীতি প্রদর্শন এবং প্রতিশোধের সংস্কৃতির কারণে অপ্রকাশিত রাখা হয়।

বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের রক্ষাপ্রাচীর স্বাধীন সংবাদ মাধ্যমের প্রতি তার মন্ত্রীরা অনুগত ব্যবসায়ী নেতাদের মাধ্যমে আর্থিক সহযোগিতা সরিয়ে দিয়েছেন। সেইসাথে, বিদেশী সাংবাদিকদের অশান্ত জায়গুলিতে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে বা তাদের ভিসা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি করা হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে ভারতের এক শীর্ষস্থানীয় সংবাদ উপস্থাপক বলেছেন, ‘ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলির একটি বড় অংশ আর প্রহরী কুকুর নয়, পোষা কুকুরে পরিণত হয়েছে।’



 

Show all comments
  • jack ali ৪ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৫২ এএম says : 0
    O'Allah muslim killer/rapist Modi and his associates, punish them with corona virus and throw them into jahannam fore ever, Ameen
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ