Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে সীমিত যান পারাপার

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০২০, ৭:১৫ পিএম

দেশের ব্যাস্ততম দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দুই পাড় থেকে মাত্র দু’টি ফেরি দিয়ে এম্বুলেন্সসহ অতি জরুরি যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। জরুরি যানবাহন পারাপারের জন্য সীমিত আকারে ফেরি সার্ভিস চালু রাখা হলেও ওই ফেরিগুলোতে করোনাভাইরাস সংক্রামন ঝুকি নিয়ে ঠাসাঠাসি করে অসংখ্য যাত্রী পারাপার হওয়ায় কর্তৃপক্ষ এই কড়াকড়ি আরোপ করে।
সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, করোনাভাইরাস সংক্রামন রোধে সারা দেশে লকডাউন চলছে। এতে করে এম্বুলেন্স ও পন্যবাহি ট্রাকসহ জরুরি যানবাহন পারাপারের জন্য দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ১৬টি ফেরির মধ্যে ৫টি ফেরি চালু রেখে সীমিত আকারে সচল রাখা হয়। কিন্তু ফেরি সার্ভিস চালু থাকার সুযোগে বিভিন্ন সময় জরুরি যানবাহনের চেয়ে সাধারণ মানুষ গাদাগাদি করে নদী পারাপার হয়ে থাকে। আজ রোববার দেশের পোশাক কারখানা খোলা থাকার ঘোষণায় গতকাল শনিবার দুপুরের পর থেকে হাজার হাজার মানুষ করোনাভাইরাস সংক্রামন ঝুকি নিয়ে গাদাগাদি করে ফেরিতে নদী পারাপার হয়।
এ বিষয়ে আজ রোববার দৈনিক ইনকিলাব প্রথম পাতায় ছবিসহ সংবাদ প্রকাশিত হয়।
এদিকে পোশাক কারখানা খোলা থাকার ঘোষণা থাকলেও গতকাল শনিবার রাতে ফের বন্ধের ঘোষণা করা হয়। এতে করে রাজধানীতে যাওয়া পোশাক শ্রমিকরা গতকাল রোববার ফিরতে শুরু করে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে গুরুত্বপূর্ণ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরির সংখ্যা কমিয়ে মাত্র দু’টিতে নামিয়ে আনা হয়।
বিআইডব্লিউটিসি’র দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি জানান, এম্বুলেন্স ও অতি জরুরি যান পারাপারের জন্য দৌলতদিয়া ঘাটে একটি ও পাটুরিয়া ঘাটে একটি ফেরি রাখা হয়েছে। এছাড়া জনসমাগম বন্ধ করতে ঘাটে পুলিশ ও সেনা সদস্যদের নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালত সার্বক্ষণিক কাজ করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেরি চলাচল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ