Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৮ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

অতিকড়া পুলিশ সদস্যরা বিপদ ডেকে আনছেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সামাজিক দ‚রত্ব বজায় রাখা জরুরি বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সেই মোতাবেক লকডাউন জারি করেছে ভুক্তভোগী প্রায় সব দেশ ও অঞ্চল। কোয়ারেন্টাইন অমান্য করলেই আটক করা হচ্ছে, দেয়া হচ্ছে জেল-জরিমানা। তবে অনেক ক্ষেত্রেই এসবে হিতে-বিপরীত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণের শিকার নিউ ইয়র্ক। সেখানেও মহামারী রোধে লকডাউন চলছে। আর এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বেশ কড়া অবস্থানে নিউ ইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট (এনওয়াইপিডি)। তবে এ দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তারা কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিপদ আরও বাড়িয়ে তুলছেন, এমনকি নিজেদেরও ঝুঁকিতে ফেলছেন। নিউ ইয়র্ক সিটিতে এ পর্যন্ত ৫৭ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন প্রায় দুই হাজার। ইতোমধ্যে শহরটির অন্তত ১৪শ’ পুলিশ কর্মকর্তার শরীরেও ধরা পড়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস, মারা গেছেন ১০ জন। ধারণা করা হচ্ছে, দায়িত্বপালনকালেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এসব পুলিশ কর্মকর্তা। কারণ পর্যাপ্ত উপকরণের অভাবে অনেক সময় মাস্ক-গøাভস ছাড়াই জনসাধারণের সংস্পর্শে যেতে হচ্ছে তাদের। এতে শুধু পুলিশ সদস্যরাই আক্রান্ত হচ্ছেন তা নয়, ঝুঁকি বাড়ছে আটক ব্যক্তিদেরও। স¤প্রতি লকডাউন নিদের্শনা অমান্য করায় আটক করা হয় ৩৭ বছর বয়সী এক নারীকে। তার দাবি, কিছুদিন আগে তিনি ও তার প্রেমিক বেডফোর্ড-স্টুভিসেন্ট এলাকায় অনিচ্ছাকৃতভাবে ২৫ জনের একটি ভিড়ের মধ্যে পড়েছিলেন। সেখান থেকে তাদের আটক করা হয়। ডেইলি মেইল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন