Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৫ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

দেশে তৈরি করছে বেক্সিমকো ও বিকন

করোনা চিকিৎসায় জাপানি ওষুধ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাস জনিত রোগের (কোভিড-১৯) চিকিৎসায় ব্যবহৃত জাপানি একটি ওষুধ তৈরি করে ফেলেছে বাংলাদেশের দুই ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি। কোম্পানি দুটি হলো বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ও বিকন ফার্মা।

ওষুধটির জেনেরিক নাম ফ্যাভিপিরাভির। জাপানি কোম্পানি ফুজি ফিল্মের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান তোয়ামা কেমিক্যাল ইনফ্লুয়েঞ্জার চিকিৎসার জন্য এটি তৈরি করেছিল। তাদের ওষুধটির ব্র্যান্ড নাম অ্যাভিগান। চীন জানিয়েছে, ওষুধটি সেদেশের করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় বেশ কার্যকর। অবশ্য জাপান এখনো করোনাভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসায় ওষুধটির চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়নি। তারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে। বাংলাদেশে ফ্যাভিপিরাভির ওষুধটি তৈরি করে রেখেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ও বিকন ফার্মা। বেক্সিমকো শুধু ফ্যাভিপিরাভির নয়, প্রচলিত যেসব ওষুধ করোনা চিকিৎসায় ব্যবহারের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হচ্ছে, তার একটি বাদে সবগুলো তৈরি করছে। চাহিদা অনুযায়ী এসব ওষুধ তারা সরকারকে দেবে।

জানতে চাইলে ক্যানসারের ওষুধ তৈরির জন্য সুপরিচিত কোম্পানি বিকন ফার্মার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ এমদাদুল করিম বলেন, আমরা ফ্যাভিপিরাভির ওষুধটি তৈরি করে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরকে দিয়েছি। ওষুধটির কার্যকারিতা পাওয়া গেলে বাণিজ্যিক উৎপাদন করা হবে। তিনি বলেন, ওষুধটি মূলত ইবোলা ভাইরাসের চিকিৎসার জন্য জাপানের ফুজি তৈরি করেছিল। চীনারা এটি প্রয়োগ করে সুফল পেয়েছে। আমরা চীন থেকে অ্যাকটিভ ফার্মাসিউটিক্যালস ইনগ্রিডিয়েন্ট এনেছি। স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশের ওষুধ তৈরিতে মেধাস্বত্ব লাগে না।

বেক্সিমকো ফার্মার প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা রাব্বুর রেজা মনে করেন করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় সবচেয়ে কার্যকর হতে পারে আইভারমেকটিন। তিনি বলেন, এটি সস্তা ও সহজলভ্য। বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন ওষুধ পরীক্ষা করছে। আমরা রেমডেসিভির বাদে সবগুলোই তৈরি করে মজুত করছি। যাতে যে কোনো একটি কার্যকর প্রমাণিত হলে এবং অনুমোদন দেওয়া হলে আমরা সরকারকে সরবরাহ করতে পারি। আইভারমেকটিনের কাঁচামালও আনা হচ্ছে। এটি তৈরি করা হবে।

সাউথচায়না মর্নিং পোস্ট গত ৪ এপ্রিল এক প্রতিবেদনে জানায়, জাপানের দুই প্রতিবেশি ফ্যাভিপিরাভির ওষুধের প্রয়োগ নিয়ে দ্বিমত পোষণ করছে। চীনারা এটির পক্ষে। অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়া বলছে, ওষুধটির পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া অনেক বেশি।

সাউথচায়না মর্নিং পোস্টের খবরে বলা হয় চীনের ন্যাশনাল সেন্টার ফর বায়োটেকনলজি ডেভেলপমেন্টের পরিচালক ঝ্যাং জিনমিন ১৮ মার্চ বলেন, চীনের দুটি মেডিকেল ইনস্টিটিউশন ফ্যাভিপিরাভির প্রয়োগ করে দেখেছে, এটি করোনাভাইরাসজনিত কিছু লক্ষণ কমাতে কার্যকর। এর মধ্যে রয়েছে নিউমোনিয়া। এর বিশেষ কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। অন্যদিকে দক্ষিণ কোরিয়ার বিজ্ঞানীদের মতামত ভিন্ন। তারা বলছে, এটি বড় ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তৈরি করতে পারে, যা মৃত্যুও ঘটাতে পারে।

সাউথচায়না মর্নিং পোস্ট জানায়, দক্ষিণ কোরিয়ার খাদ্য ও নিরাপদ ওষুধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ফ্যাভিপিরাভিরের বদলে যুক্তরাষ্ট্রের একটি কোম্পানির তৈরি রেমডেসিভির নামের একটি ওষুধ করোনা চিকিৎসায় ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। এটি ইবোলা ভাইরাস চিকিৎসার জন্য তৈরি করা হয়েছিল। তৈরি করেছিল যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ কোম্পানি জাইলিড সায়েন্স।

অস্ট্রেলিয়ার এবিসি নিউজের গত শনিবারের এক খবরে বলা হয়, মোনাশ বায়োমেডিসিন ডিসকভারি ইনস্টিটিউট ও ডোহার্টি ইনস্টিটিউটের এক গবেষণায় জানানো হয়েছে, আইভারমেকটিন শরীরে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পারে। যদিও বিষয়টি একেবারেই পরীক্ষার পর্যায়ে রয়েছে।

এদিকে কোম্পানিগুলো জানিয়েছেন, এসব ওষুধ ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অনুমোদন নিয়েই তৈরি হচ্ছে। বেক্সিমকো ও বিকনের বাইরে আরও দু-একটি কোম্পানি ওষুধগুলো তৈরির অনুমোদন নিয়েছে। এর মধ্যে একটি জিসকা ফার্মাসিউটিক্যালস। জানতে চাইলে জিসকার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমিনুল ইসলাম খান বলেন, প্রয়োজন হলে আমরা ওষুধটি তৈরি করতে পারব। ##



 

Show all comments
  • আমীন নূরুল ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৪ এএম says : 0
    হাতি ঘোড়া গেল তল গাধা বলে কত জল
    Total Reply(0) Reply
  • MD Saddam Hossein ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৪ এএম says : 0
    তাহলে বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মা পৃথিবীর প্রথম কোম্পানি যারা করোনা ভাইরাস এর ঔষধ আবিষ্কার করলো?
    Total Reply(0) Reply
  • Md Neaz Morshed ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    চেষ্টা করা উচিৎ
    Total Reply(0) Reply
  • Sanwar Kazi ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
    আল্লাহ রহমত করো।
    Total Reply(0) Reply
  • Shamim Mamun ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৬ এএম says : 0
    bring this medicine to us before any people die
    Total Reply(0) Reply
  • Shahriar Mithu ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৮ এএম says : 0
    খবরটিও সত্যি হলে অনেক মানুষ বেচে যাবে। আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ তুমি মহান অশিম তোমার রহমত।
    Total Reply(0) Reply
  • RusseLL RashiD ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৮ এএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ l
    Total Reply(0) Reply
  • Lazu Zaman ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৯ এএম says : 0
    Alhumdulillah,prothomei Allah r sukria aday kori,jano kothata shotty hoy abong osudh karjokor hoy.Sokol proshongsha Allah r naam a.Ameen.
    Total Reply(0) Reply
  • Tanvir Ahmed ৬ এপ্রিল, ২০২০, ১:০৯ এএম says : 0
    Alahamdulilla.great news..!
    Total Reply(0) Reply
  • Md Akash ১১ এপ্রিল, ২০২০, ৮:৩০ পিএম says : 0
    চেষ্টা করেন ইনসাআল্লা সফল হবেন......
    Total Reply(0) Reply
  • Md Akash ১১ এপ্রিল, ২০২০, ৮:৩০ পিএম says : 0
    চেষ্টা করেন ইনসাআল্লা সফল হবেন......
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ