Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মহাশ্বেতা দেবীর ভূমিকায় গার্গী রায় চৌধুরী

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০১ এএম

সমাজের বিধি মানতে অস্বীকার করে এমন ন্যায়পরায়ণ চরিত্রে অভিনয় করা একজন অভিনয়শিল্পীর জন্য বড় এক চ্যালেঞ্জ। আর চরিত্রটি যদি হয় মহাশ্বেতা দেবীর মত একজন লেখক –সমাজকর্মীর তাহলে তা আরও কঠিন হয়ে পড়ে। ঠিক এই চ্যালেঞ্জটিই নিয়েছেন গার্গী রায়চৌধুরী। তিনি মহাশ্বেতা দেবীর জীবন ও কাজ অনুপ্রাণিত অরিন্দম শীল পরিচালিত ‘মহানন্দা’ চলচ্চিত্রে এই চ্যালেঞ্জেরই মোকাবেলা করবেন। প্রথাবিরোধী, নারীবাদী লেখিকা মহাশ্বেতা দেবীর ভূমিকা রূপায়নের জন্য গার্গী পুরো মনপ্রাণ ঢেলে কাজ করছেন। মহাশ্বেতা দেবী আমরণ ভারতের উপজাতীয় জনগোষ্ঠির অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে গেছেন। গার্গী বলেন : “এটি আমার জন্য একটি মাইলস্টোন। সে জন্যই আমি এটি করতে সায় দিয়েছি। আমি দুই দশক ধরে কাজ করে যাচ্ছি। এতোগুলো বছরে কেউ আমাকে এমন চরিত্র করার প্রস্তাব দেয়নি। মহাশ্বেতা দেবীর আবেগময় শক্তি তাই প্রাণে ভরপুর। ভাবা যায় ১৯৬০ সালে তিনি বিজন ভট্টাচার্য’র ঘর ছেড়ে এতোগুলো প্রথাবিরুদ্ধ কাজ করেছেন।” যারা তাকে ‘হাজার চুরাশির মা’ এবং ‘রুদালি’র আয়নায় দেখে তারা তার সামান্যই জানে। তিনি তার চেয়েও বড়, আর তাই দেখানো হবে ‘মহানন্দা’তে। এ জন্য আমি সাঁওতাল ভাষা শিখছি, তাকে নিয়ে লেখা বই পড়ছি, পুরুলিয়ার গ্রামে যাচ্ছি, সবকিছু তো মেকআপ দিয়ে দেখান যায় না,” তিনি বলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভূমিকা


আরও
আরও পড়ুন