Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

হুমায়ূন আহমেদ প্রতিষ্ঠিত বিদ্যাপীঠে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা : থানায় জিডি

প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নেত্রকোনা জেলা সংবাদদাতা : নন্দিত কথাসাহিত্যিক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা মরহুম হুমায়ূন আহমেদের গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার রোয়াইলবাড়ী ইউনিয়নের কুতুবপুর গ্রামে তার নিজ হাতে গড়া শহীদ স্মৃতি বিদ্যাপীঠে আসা অজ্ঞাত এক পাগল এবং অপরিচিত দুই ব্যক্তির রহস্যজনক আচরণকে ঘিরে শিক্ষকসহ এলাকাবাসীর মাঝে জঙ্গি আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ ব্যাপারে গত ১৩ জুলাই কেন্দুয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। (জিডি নং-৪৭৮)।
বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক মো. আসাদুজ্জামান জানান, রমজান মাসের শেষের দিকে শহীদ স্মৃতি বিদ্যাপীঠ প্রাঙ্গণে অজ্ঞাত পরিচয় এক মধ্যবয়সী পাগল লোক আসে। তাড়ালেও যেতে চায় না এবং কারো সাথে কথা বলে না। পাগল ভেবে কেউ আর কিছু বলেনি। এ অবস্থায় গত ১০ জুলাই অজ্ঞাত পরিচয় দুই জন যুবক এসে পাগলের সঙ্গে কথাবার্তা বলে এবং কুতুবপুর গ্রামের আ. সালাম, আলী হোসেন, আল আমিনসহ গ্রামের বেশ কিছু লোকের কাছে ঐ দুইজন জানতে চায় হুমায়ূন আহমেদ স্যার নামাজ পড়তেন কি না, মসজিদে দান-খয়রাত করতেন কি না, ইসলামধর্মীয় কাজে সম্পৃক্ত হতেন কি না ইত্যাদি। একপর্যায়ে স্কুলের শিক্ষকদের বসার ঘরে গিয়েও এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরিচয় জানতে চাইলে কৌশলে পরিচয় না দিয়েই তারা চলে যায়। এতে স্কুলের শিক্ষক ও এলাকাবাসীর মাঝে অপরিচিতি দুই যুবকের রহস্যজনক আচরণ সম্পর্কে সন্দেহ দেখা দেয়। তিনি আরও জানান, আগামী ১৯ জুলাই হুমায়ূন স্যারের চতুর্থ মৃত্যুবাষিকী। এ উপলক্ষে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মৃত্যুবার্ষিকী পালনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এ সময় অজ্ঞাত পরিচয় সন্দেহভাজন দুই যুবকের এ আচরণ এলাকাবাসীর মাঝে আতংক সৃষ্টি করেছে।
এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানার ওসি অভিরঞ্জন দেব জিডি’র বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ