Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬ আশ্বিন ১৪২৮, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আর্জেন্টিনা দলে সিমিওনে পুত্র জিওভান্নি

প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:২৭ পিএম, ১৫ জুলাই, ২০১৬

স্পোর্টস ডেস্ক : অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কোচ ডিয়েগো সিমেওনের পুত্র খেলেন স্বদেশী ক্লাব রিভার প্লেটের স্ট্রাইকার হিসেবে। গত ফেব্রæয়ারিতে দক্ষিণ আমেরিকা অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়ন্সশিপে ৯ ম্যাচে ৯ গোল করে হয়েছিলেন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা। আসন্ন রিও অলিম্পিকের চূড়ান্ত দলে তাই জিওভান্নির জায়গা পাওয়াটা অনুমতিই ছিল। হলও তাই, তাকে রেখেই দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা। এছাড়া ১৮ সদস্যের এই দলে জায়গা পেয়েছেন আথলেটিকো মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড এঞ্জেল কোররেয়া। তবে এই তালিকায় মেলেনি পাওলো দিবালা ও মাউরো ইকার্দির নাম। ব্যাপারটাও অবশ্য আগেই জানা গিয়েছিল। পরশু সেটা নিশ্চিত করা হল আনুষ্ঠানিকভাবে।
দিবালাকে দলে না পাওয়ার কারণটা এবার আরো স্পষ্ট করলেন আর্জেন্টিনার অলিম্পিক কমিটির সভাপতি জেরার্ডো ওয়ের্দেইন। তিনি জানান, অলিম্পিকের জন্য ক্লাবগুলোর কাছ থেকে খেলোয়াড়দের পেতে বেশ বেগ পোহাতে হয়েছে তাদের। সামনেই শুরু হবে ঘরোয়া লিগ, আর এই কারণেই দিবালাকে ছাড়েনি জুভেন্টাস। একই কারণে দলে পাওয়া যায়নি ইন্টার মিলানের মাউরো ইকার্দিকেও।
আর্জেন্টিনা দলে দেশের বাইরে খেলা ৫ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে একজন কোররেয়া। বাকিরা হলেনÑ ওয়েস্ট হ্যামের মিডফিল্ডার মানুয়েল লানসিনি, রিয়াল সোসিয়েদাদের গোলরক্ষক জেরোনিমো রুয়ি, সাও পাওলোর ফরোয়ার্ড জোনাথান কায়েরি ও ক্রুজেইরোর লুকাস রোমেরো। অলিম্পিকে সাধারনত অনূর্ধ্ব ২৩ দল খেললেও দু’জন বয়স্ক খেলোয়াড় নিতে পারেন কোচ। আর্জেন্টিনার সেই দু’জন হলেনÑ গোলরক্ষক রুয়ি আর ইন্দেপেন্দিয়েস্তের ডিফেন্ডার ভিক্তর কুয়েস্তা।
আর্জেন্টিনা ফুটবল এখন যাচ্ছে হতাশাময় এক সময়ের মধ্য দিয়ে। শুরু হয়েছিল কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরে চিলির কাছে হারের মধ্য দিয়ে। এরপর গেল সপ্তাহে অলিম্পিক দলের অনুশীলনে মাত্র ৯ জন খেলোয়াড় উপস্থিত হওয়ার পর দলের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান জেরার্ডো মার্টিনো। দুই বছরে দুই কোপায় দলকে ফাইনালে নিয়ে আসা মার্টিনোর জায়গায় এসেছেন ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য হুলিও ওলার্তিকোয়েচেয়া। তার অধীনেরই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বীদের মাটিতে খেলতে যাবে আর্জেন্টাইনরা।
ব্রাজিল দলেও তেমন কোন পরিবর্তন নেই। প্রত্যাশিতভাবে নেইমারকে রেখেই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে তারা। আগেই ঘোষিত ১৮ সদস্যের দলে পরিবর্তন এসেছে দু’টি। ইনজুরির কারণে দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখ উইঙ্গার ডগøাস কস্তা এবং শাখতার দোনেৎস্কের মিডফিল্ডার ফ্রেড। তাদের পরিবর্তে দলে জায়গা পেয়েছেন ওয়ালাখ ও রেনাতো অগাস্তো।
আগামী ৫ আগস্ট পর্দা উঠবে রিও অলিম্পিকের। তবে ফুটবলের লড়াইটা শুরু হবে একদিন আগে থেকে। উদ্বোধনী ম্যাচে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। ‘এ’ প্রæপে তাদের বাকি দুই প্রতিপক্ষ ইরাক ও ডেনমার্ক। আর্জেন্টিনা পড়েছে ‘সি’ গ্রæপে। ৫ আগস্ট প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ পর্তুগাল। গ্রæপের বাকি দুই দল আলজেরিয়া ওহন্ডুরাস।

 

আর্জেন্টিনা দলে সিমিওনে পুত্র জিওভান্নি
স্পোর্টস ডেস্ক : অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কোচ ডিয়েগো সিমেওনের পুত্র খেলেন স্বদেশী ক্লাব রিভার প্লেটের স্ট্রাইকার হিসেবে। গত ফেব্রæয়ারিতে দক্ষিণ আমেরিকা অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়ন্সশিপে ৯ ম্যাচে ৯ গোল করে হয়েছিলেন টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা। আসন্ন রিও অলিম্পিকের চূড়ান্ত দলে তাই জিওভান্নির জায়গা পাওয়াটা অনুমতিই ছিল। হলও তাই, তাকে রেখেই দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা। এছাড়া ১৮ সদস্যের এই দলে জায়গা পেয়েছেন আথলেটিকো মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড এঞ্জেল কোররেয়া। তবে এই তালিকায় মেলেনি পাওলো দিবালা ও মাউরো ইকার্দির নাম। ব্যাপারটাও অবশ্য আগেই জানা গিয়েছিল। পরশু সেটা নিশ্চিত করা হল আনুষ্ঠানিকভাবে।
দিবালাকে দলে না পাওয়ার কারণটা এবার আরো স্পষ্ট করলেন আর্জেন্টিনার অলিম্পিক কমিটির সভাপতি জেরার্ডো ওয়ের্দেইন। তিনি জানান, অলিম্পিকের জন্য ক্লাবগুলোর কাছ থেকে খেলোয়াড়দের পেতে বেশ বেগ পোহাতে হয়েছে তাদের। সামনেই শুরু হবে ঘরোয়া লিগ, আর এই কারণেই দিবালাকে ছাড়েনি জুভেন্টাস। একই কারণে দলে পাওয়া যায়নি ইন্টার মিলানের মাউরো ইকার্দিকেও।
আর্জেন্টিনা দলে দেশের বাইরে খেলা ৫ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে একজন কোররেয়া। বাকিরা হলেনÑ ওয়েস্ট হ্যামের মিডফিল্ডার মানুয়েল লানসিনি, রিয়াল সোসিয়েদাদের গোলরক্ষক জেরোনিমো রুয়ি, সাও পাওলোর ফরোয়ার্ড জোনাথান কায়েরি ও ক্রুজেইরোর লুকাস রোমেরো। অলিম্পিকে সাধারনত অনূর্ধ্ব ২৩ দল খেললেও দু’জন বয়স্ক খেলোয়াড় নিতে পারেন কোচ। আর্জেন্টিনার সেই দু’জন হলেনÑ গোলরক্ষক রুয়ি আর ইন্দেপেন্দিয়েস্তের ডিফেন্ডার ভিক্তর কুয়েস্তা।
আর্জেন্টিনা ফুটবল এখন যাচ্ছে হতাশাময় এক সময়ের মধ্য দিয়ে। শুরু হয়েছিল কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরে চিলির কাছে হারের মধ্য দিয়ে। এরপর গেল সপ্তাহে অলিম্পিক দলের অনুশীলনে মাত্র ৯ জন খেলোয়াড় উপস্থিত হওয়ার পর দলের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান জেরার্ডো মার্টিনো। দুই বছরে দুই কোপায় দলকে ফাইনালে নিয়ে আসা মার্টিনোর জায়গায় এসেছেন ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য হুলিও ওলার্তিকোয়েচেয়া। তার অধীনেরই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বীদের মাটিতে খেলতে যাবে আর্জেন্টাইনরা।
ব্রাজিল দলেও তেমন কোন পরিবর্তন নেই। প্রত্যাশিতভাবে নেইমারকে রেখেই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে তারা। আগেই ঘোষিত ১৮ সদস্যের দলে পরিবর্তন এসেছে দু’টি। ইনজুরির কারণে দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখ উইঙ্গার ডগøাস কস্তা এবং শাখতার দোনেৎস্কের মিডফিল্ডার ফ্রেড। তাদের পরিবর্তে দলে জায়গা পেয়েছেন ওয়ালাখ ও রেনাতো অগাস্তো।
আগামী ৫ আগস্ট পর্দা উঠবে রিও অলিম্পিকের। তবে ফুটবলের লড়াইটা শুরু হবে একদিন আগে থেকে। উদ্বোধনী ম্যাচে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। ‘এ’ প্রæপে তাদের বাকি দুই প্রতিপক্ষ ইরাক ও ডেনমার্ক। আর্জেন্টিনা পড়েছে ‘সি’ গ্রæপে। ৫ আগস্ট প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ পর্তুগাল। গ্রæপের বাকি দুই দল আলজেরিয়া ওহন্ডুরাস।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আর্জেন্টিনা দলে সিমিওনে পুত্র জিওভান্নি
আরও পড়ুন