Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

বাটলারের বিশ্বকাপ জার্সি বিক্রি ৬৫ হাজার পাউন্ডে

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২০, ৭:৫৭ পিএম

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সহায়তার জন্য নিজের অমূল্য এক সম্পদ নিলামে তুলেছিলেন জস বাটলার। ইংল্যান্ডকে প্রথম বিশ্বকাপ এনে দেওয়ার ইতিহাস জড়িয়ে আছে সেই সম্পদটিতে। মানবিক কাজে মানুষও সাড়া দিয়েছে। গত বিশ্বকাপ ফাইনালে বাটলার যে জার্সিটি পরে মাঠে নেমেছিলেন, নিলামে শেষ পর্যন্ত তার দাম উঠেছে ৬৮ লাখ টাকার বেশি। এই ঘটনায় ভীষণ আনন্দিত এই ইংলিশ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

লন্ডনে দুটি হাসপাতালকে আর্থিক সহায়তার জন্য গত ৩১ মার্চ ২৯ বছর বয়সী বাটলার তার জার্সিটি অনলাইন নিলামে তোলেন। নিলাম শেষ হয়েছে গতকাল (মঙ্গলবার) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়। একটা পর্যায়ে অবশ্য আরও বেশি দাম উঠেছিল এই জার্সির। কারণ বহু ধনী ব্যক্তিরা এই ঐতিহাসিক জার্সি কিনতে চেয়েছেন। অনলাইনে মোট বিড হয়েছিল ১৬০টি পর্যন্ত। সর্বোচ্চ মূল্য উঠেছিল ৬৫ হাজার ৯০০ পাউন্ড। শেষ পর্যন্ত টিকে ছিল ৮২টি বিড, চূড়ান্ত দাম উঠেছে ৬৫ হাজার ১০০ পাউন্ড।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ফাইনালে এই জার্সি পরেই গুরুত্বপূর্ণ হাফ সেঞ্চুরি উপহার দিয়েছিলেন বাটলার। সুপার ওভারের শেষ বলে তিনিই বল ধরে দারুণ দক্ষতায় রান আউট করেছিলেন মার্টিন গাপটিলকে। স্মরণীয় এই জার্সিতে সতীর্থদের সবার অটোগ্রাফ নিয়ে রেখেছিলেন বাটলার। তাতে আরও অমূল্য হয়ে ওঠে জার্সিটি। শেষ পর্যন্ত মানবিক কাজে জার্সিটির এত দাম পাওয়ায় উচ্ছসিত বাটলার বলেছেন, আমার জন্য এটা খুবই স্পেশাল জার্সি। তবে ভীষণ প্রয়োজনীয় একটি কাজে লাগায় এটি আরও অর্থবহ হয়ে উঠেছে।

এরআগে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে বাটলার বলেছিলেন, ‘টাকা তুলতে আমি আমার বিশ্বকাপ ফাইনালের জার্সি নিলামে তুলছি। গত সপ্তাহেই এই দুটো হাসপাতাল সকলকে তাদের পাশে থাকার আহ্বান জানিয়েছিল। সেই অনুরোধেই প্রিয় জার্সি নিলামে সিদ্ধান্ত নিলাম। দেশের এখন আমাদের মতো মানুষদের সাহায্যের প্রয়োজন। করোনা আক্রান্তদের সুস্থ করতে ওষুধ থেকে শুরু করে যাবতীয় সরঞ্জাম কিনতে এই অর্থ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ব্যবহার করতে চায় ।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন