Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

নেছারাবাদে ১৮ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখতে গিয়ে স্থানীয়দের হামলায় পুলিশ সাংবাদিকসহ আহত ৫

নেছারাবাদ (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২০, ৮:২৩ পিএম

নারায়নগঞ্জ থেকে নেছারাবাদে ফিরে আসা ১৮ ব্যক্তিকে কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোয়ারেন্টাইনে রাখতে গিয়ে বাধার মুখে পড়ে প্রশাসন। কাটাপিটানিয়া গ্রামে বাইরের লোক রাখতে গেলে ইউপি সদস্য সুখলাল ঢালী ও রনজিত বেপারীর নেতৃত্বে স্থানীয়রা বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহিন মিয়া ও উপ পরিদর্শক তাজেলসহ পুলিশের উপর চড়াও হয় । এ সময় ওই এলাকার কয়েক‘শ মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে চেয়ারম্যান ও পুলিশের উপর হামলা চালায়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ জরে। ঘটনার সময় স্থানীয় সাংবাদিক গোলাম মোস্তফা ও এস আই তাজেল, এস আই আল মামুন,ইউপি সদস্য মো. সুমন ও চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত গাড়ীর চালক মাসুম বিল্লাহ হামলার শিকার হন।
আহতদের নেছারাবাদ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
বৃহসপতিবার বিকেলে কাটাপিটানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেল্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
জানাগেছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে নারায়নগঞ্জ শহর থেকে একটি ভাড়া করা ট্রলারে করে বলদিয়া ইউনিয়নসহ পাশ্ববর্তী এলাকার ১৮জন লোক ওই এলাকায় আসেন। এ খবর জানার পর ইউএনও সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু ওই লোকদেরকে কোনো একটি বিদ্যালয়ে কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য বলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন। এসময় নেছারাবাদ থানার এস আই মো.তাজেলকেও ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়।
এ রিপোর্ট লেখার সময় নারায়নগঞ্জ প্রবাসীদেরকে বলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ট্রলারে বসিয়ে রাখা হয়।
এ বিষয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন বাবু বলেন গত কয়দিনে ঢাকা ও নারায়নগঞ্জ থেকে য়ত ট্রলারে করে লোক দেশের বাড়ীতে পালিয়ে আসছে বলে খবর পাচ্ছি। মানবিক কারনে এ লোকগুলোকে একটি নিরাপদ দুরত্বে কোয়ারেন্টাইনে রাখার চেষ্টা করছি। এ বিষয় থানার অফিসার ইনচার্জ মো.কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন বর্তমান সময় বাইরে থেকে লোক আসায় মানুষের মধ্যে ভীতি কাজ করে বলেই তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখার চেষ্টা করছি। কিন্তু কিছু না বুঝেই কাটাপিটানিয়া গ্রামের মানুষকে চটিয়ে দিয়ে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। হামলার ঘটনার সময় উপস্থিত এস আই তাজেল বলেন কিছু মাতুব্বরের উসকানিতে তারা আমাদের হামলা শুরু করেন।
এ বিষয় ইউপি সদস্য সুখলালের সাথে কথা বলার জন্য তার ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১৭ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ