Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

ঝালকাঠিতে নারকেল গাছ থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২০, ২:০৬ পিএম

বাবা করাতকলের শ্রমিক মা গৃহিনী। অর্থাভাবে এসএসসির পর আর লেখা পড়া হয়নি। ঢাকায় পিকআপ ভ্যান চালানোর পেশা বেছে নেয় সাইফুল ইসলাম (২৫)। ছয় মাস আগে সে বিয়েও করে। করোনাভাইরাসের কারণে দেশে অঘোষিত লকডাউন শুরু হলে সে ঝালকাঠি শহরে এসে ডাব বিক্রির ব্যবসা শুরু করে। বৃহস্পতিবার বিকেলে পূর্বচাঁদকাঠি এবাদুল্লাহ জামে মসজিদের পেছনে একটি বাড়িতে নারকেল গাছ থেকে ডাব পাড়ার সময় পড়ে গিয়ে তাঁর মৃত্যু হয়।

জানা যায়, শহরের গুরুধাম এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকেন নিহত সাইফুল। তাঁর বাবা আবদুল খালেক পার্শ্ববর্তী সিকদার করাতকলের শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলায়। ২০ বছর ধরে পরিবার নিয়ে ঝালকাঠি শহরের গুরুধাম এলাকায় বসবাস করেন তিনি। আব্দুল খালেকের তিন ছেলের মধ্যে সাইফুল সবার বড়। অভাববের সংসারে এসএসসি পাস করার পর সাইফুল আর পড়াশোনা করতে পারেনি। বিভিন্ন কাজ করার পরে বছর দুয়েক আগে ঢাকায় পিকআপ ভ্যান চালানো শুরু করে। স্বপ্ন দেখে পিকআপ চালিয়ে একদিন সংসারে স্বচ্ছলতা আনবে। ছয় মাস আগে বিয়ে করে রিয়া নামে এক কলেজ ছাত্রীকে।
নিহত সাইফুলের বাবা আবদুল খালেক বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে ও (সাইফুল) পূর্বচাঁদকাঠি এলাকায় শাহজাহান স্বর্ণকারের বাড়ির তিনটি নারকেল গাছের ডাব ৫০০ টাকায় কেনে। ওই ডাব গাছ থেকে পাড়ার জন্য বিকাল তিনটার দিকে সে গাছে ওঠে। ডাব পারার সময় সে একটি গাছ থেকে পড়ে মারা যায়। আশপাসের লোকজন সাইফুলকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. জিয়াউল হাসান সাইফুলকে মৃত ঘোষণা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ