Inqilab Logo

বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৫ মাঘ ১৪২৮, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ও মার্কিন সেনা থাকবে ইরাকে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৫১ পিএম

আমেরিকার সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইরাকে শত শত মার্কিন সেনা মোতায়েন থাকবে। সেইসঙ্গে চালু থাকবে সম্প্রতি মোতায়েন করা প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন মার্কিন কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা এএফপি-কে এসব কথা বলেছেন। এছাড়া, ইরাকের তুর্কি অধ্যুষিত কুর্দিস্তান অঞ্চলের রাজধানী এরবিলের সামরিক ঘাঁটিতে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে। অবশ্য, এ ব্যাপারে মার্কিন কর্মকর্তারা বিস্তারিত কিছু জানাননি। এ দুটি ঘাঁটিই গত ৮ জানুয়ারি ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ধ্বংস করে দেয়।

ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানির হত্যার বদলা নিতে ইরানে ওই হামলা চালায়। মার্কিন কর্মকর্তারা আরো জানিয়েছেন, ইরাকের রাজধানী বাগদাদের উত্তরে তাজি সামরিক ঘাঁটিতে একটি স্বল্প পাল্লার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে। গত মাসে দখলদার মার্কিন সেনাদের এই ঘাঁটিতে গেরিলারা কাতিউশা রকেট দিয়ে হামলা চালায়। গত কয়েক মাস ধরে ইরাকের বিভিন্ন সামরিক ঘাঁটিতে রকেট হামলা হয়েছে।
ইরাকের বিভিন্ন গেরিলা গোষ্ঠীসহ সরকার চাইছে- দেশটি থেকে মার্কিন সেনাবাহিনী চলে যাক। জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পরপরই ইরাকে জাতীয় সংসদে একটি প্রস্তাব পাস হয় যাতে ইরাক থেকে সমস্ত মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করার আহবান জানানো হয়েছে। কিন্তু মার্কিন সরকার এ পর্যন্ত সে আহবান উপেক্ষা করে এসেছে। পার্সটুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ