Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাকারবার্গের বেতন বছরে ৮৫ টাকা, নিরাপত্তায় খরচ ২০০ কোটি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ এপ্রিল, ২০২০, ৭:২৪ পিএম | আপডেট : ৭:৩৩ পিএম, ১২ এপ্রিল, ২০২০

২০১৯ সালে ফেসবুক সিইও মার্ক জাকারবার্গের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও বিমানযাত্রার জন্য ২৩.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ১ হাজার ৯৭৭ কোটি টাকা) খরচ হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনে ফেসবুকের আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে যে রিপোর্ট জমা দেয়া হয়েছে, তা থেকেই জাকারবার্গের জন্য এই খরচের বিষয়টি জানা গিয়েছে।

সিএনবিসি’র তথ্য অনুসারে, জাকারবার্গ ফেসবুকের সিইও হিসাবে বছরে মাত্র ১ ডলার বা প্রায় ৮৫ টাকা বেতন নেন। তবে তার সম্পদের পরিমাণ ৮ হাজার ২৬০ কোটি ডলার। ফেসবুকের শেয়ার থেকে তিনি প্রতিদিন প্রায় ৪০ লাখ ডলার আয় করেন। জানা গেছে, ‘২০১৮ সালে ফেসবুক সিইও-র ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও বিমানযাত্রার জন্য যত অর্থ খরচ করা হয়েছিল, ২০১৯ সালে তার চেয়ে ৩৪ লাখ মার্কিন ডলার বেশি খরচ করা হয়েছে। এছাড়া জাকারবার্গের ব্যক্তিগত বিমানযাত্রার জন্যও ২.৯৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করা হয়েছে। জাকারবার্গ ও তার পরিবারের লোকজনের নিরাপত্তার জন্য ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করা হয়েছে। ২০১৭ ও ২০১৮ সালে এই বাবদ খরচ ছিল যথাক্রমে ৭.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ও ৯.৯৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ফেসবুক সিইও বেতন হিসেবে প্রতি বছর নেন এক মার্কিন ডলার। কিন্তু অন্যান্য খরচ বাবদ তিনি অনেক বেশি অর্থ নেন। ২০১৭ সালে তিনি মোট খরচ বাবদ পেয়েছিলেন ৯.১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০১৮ সালে সেটা দ্বিগুণেরও বেশি বেড়ে হয় ২২.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।’

ফেসবুকের চিফ অপারেটিং অফিসার শেরিল স্যান্ডবার্গ ২০১৮ সালে বেসিক পে হিসেবে পেয়েছিলেন ৮ লাখ ৪৩ হাজার মার্কিন ডলার। বোনাস পেয়েছিলেন ৬ লাখ ৩৮ হাজার মার্কিন ডলার। ২০১৯ সালে তিনি বেসিক পে বাবদ পান ৮ লাখ ৭৫ হাজার মার্কিন ডলার। বোনাস হিসেবে তিনি পান ৯ লাখ ২ হাজার ৭৪০ মার্কিন ডলার। স্টক অ্যাওয়ার্ডস বাবদ তিনি পান ১ কোটি ৯৬ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার। ২০১৮ সালে তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য খরচ হয়েছিল ২৯ লাখ মার্কিন ডলার। ২০১৯ সালে এই খরচই বেড়ে হয় ৪৩ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার। সূত্র: সিএনবিসি।



 

Show all comments
  • আবদুর রাফি ২২ এপ্রিল, ২০২০, ৮:০৬ পিএম says : 0
    করোনায় কার কি হবে আল্লাহই ভাল জানেন। ইসলাম বিদ্বেষী ইহুদি হিন্দু খ্রিষ্টানদের ধ্বংস কামনা করি আল্লাহর কাছে। ওরাও ওদের প্রভুর কাছে এটা কামনা করুক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুক


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ