Inqilab Logo

ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

স্বাস্থ্যকর্মীদের ২৫ হাজার পিপিই কিট দিলেন শাহরুখ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ৫:৪৯ পিএম

করোনা মোকাবিলায় সামনে থেকে যারা হাত লাগিয়েছেন তাদের জন্য ৫০ হাজার পিপিই কিট বাংলা আর মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে দেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। কথা রাখলেন শাহরুখ। করোনায় বিধ্বস্ত মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যকর্মী এবং ডাক্তারদের জন্য ২৫ হাজার পিপিই কিট দিচ্ছেন বলিউড বাদশা তিনি।

মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে জানিয়েছেন, “ফ্যানের অভিনেতার অবদান মেডিক্যাল ওয়ার্কারদের ভীষণভাবে সাহায্য করবে”।

করোনার জেরে দেশের স্বাস্থ্যক্ষেত্রে চরম সংকট মুহূর্তে দেশবাসীকে আপদকালীন ফান্ডে যথাসাধ্য সাহায্যের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। দেশের প্রথম সারির অ্যাথলিট থেকে শুরু করে রুপোলি পর্দার অভিনেতা-অভিনেত্রীরা যখন সেই ফান্ডে নিজেদের সাধ্যমতো অর্থদান করছেন, সেই সময় শাহরুখ খানের মৌনতা নিয়ে উঠছিল প্রশ্ন।

অবশেষে সমালোচকদের জবাব দিয়ে করোনা মোকাবিলায় একগুচ্ছ অনুদানের কথা ঘোষণা করলেন কিং খান। তাও আবার তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট ক্লাব কেকেআর’কে সামনে রেখে। করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর তহবিল তো তো বটেই, একইসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলেও একাধিক উপায়ে সাহায্যের ঘোষণা করল শাহরুখের প্রোডাকশন হাউস রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট, মীর ফাউন্ডেশন।

বিতর্কের মুখেও শাহরুখ লিখেছিলেন, “এই সঙ্কটকে আমরা চিনি না। এই সঙ্কটে এমন কোনও পদক্ষেপ হয়তো আমরা করব যা কার্যকরী হবে না। আবার এমন কিছু পদক্ষেপ আচমকাই সাফল্য এনে দেবে। আমাদের একত্র হয়ে আর সাহসের সঙ্গে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে।’’ কোন খাতে কত টাকা দেওয়া হয়েছে তা-ই নয়, দেশ জুড়ে কোথায় কী ভাবে কাজ করবে শাহরুখের সংস্থা? সোজাসুজি প্ল্যান পোস্ট করা হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

উল্লেখ্য, শাহরুখের প্রতিশ্রুতিমতো ৫০ হাজার কিটের মধ্যে ইতিমধ্যেই ২৫ হাজার কিট পেয়েছে মহারাষ্ট্র। অতঃপর বাকি ২৫ হাজার কিট যে বাংলায় পাঠাচ্ছেন কিং খান, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না। বাংলা এবং মহারাষ্ট্রের পাশাপাশি দিল্লিতেও বিপুল পরিমাণে সাহায্য করেছেন শাহরুখ। কিন্তু কোনওখানেই তাঁর দেয়া অনুদানের অঙ্কের কথা উল্লেখ করেননি তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পিপিই


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ