Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বিনা পারিশ্রমিকে বিজ্ঞাপন, শর্ত ত্রাণ সহায়তা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ এপ্রিল, ২০২০, ১২:২৮ পিএম

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে লকডাউন সারাবিশ্ব। এর প্রভাব সবচেয়ে বেশি পড়েছে দিনমজুর ও হতদরিদ্র মানুষের উপর‌। লকডাউন থাকায় কাজের তাগিদে বাহিরে যাওয়ার সুযোগ নেই তাই তো খেয়ে পড়ে বাঁচাই কষ্টসাধ্য হয়ে গেছে। ইতোমধ্যে এমন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিভিন্ন সচ্ছল ব্যক্তিরা, পাশে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি ও তার ফাউন্ডেশন।

ইতোমধ্যে অনেক মানুষের মাঝেই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। আফ্রিদির ফাউন্ডেশনে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারও আর্থিক অনুদান দিয়েছেন। এবার সহায়তার পরিমাণ বাড়াতে এক অভিনব পদ্ধতি বেছে নিলেন আফ্রিদি। এতদিন যে ব্র্যান্ডগুলোর হয়ে বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন তাদের কাছে কাজ করার জন্য আর পয়সা নিবেন না তিনি। তবে তাদেরকে আফ্রিদির এই ফ্রি সার্ভিস পেতে হলে একটি শর্ত জুড়ে দিয়েছেন ‘বুমবুম’। তাদের এগিয়ে আসতে হবে তহবিল গঠন ও ত্রাণ সহায়তায়।

নিজের অফিশিয়াল টুইটার আইডিতে আফ্রিদি এক ভিডিও বার্তা পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমি অনেক ভাগ্যবান, এই কারণে যে আমি অ্যাড বা প্রমোশনের কাজে অনেকের সঙ্গে কাজ করেছি। এখন কাজ করছি যারা করোনার কারণে কষ্ট পাচ্ছে তাদের জন্য। যেসব ব্র্যান্ডের সঙ্গে আমি কাজ করেছি তাদের সবার কাছে আমার প্রস্তাবনা আছে। আমি ব্র্যান্ডের হয়ে বিনামূল্যে কাজ করবো, কোন পারিশ্রমিক নেবো না। আমি শুধু চাই আপনারা বিনিময়ে তহবিল গঠন করবেন এবং ত্রাণ সহায়তা দিবেন।’

আফ্রিদি এমন মহানুভব প্রস্তাব দেওয়ায় টুইটারে প্রশংসায় ভাসছেন। পাকিস্তানের ক্রিকেটার, সাংবাদিক, সাধারণ সমর্থকরা সবাই বাহবা দিচ্ছেন আফ্রিদিকে। এই উদ্যোগের প্রশংসা কেবল পাকিস্তানের ভূখন্ডেই সীমাবদ্ধ নেই। গোটা বিশ্বেই ছড়িয়েছে।



 

Show all comments
  • মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম ১৫ এপ্রিল, ২০২০, ২:১৭ পিএম says : 0
    ভালো মানুষ এখনো পৃথিবীতে আছে, ভাই আফ্রিদি বেঁচে থাক হাজার বছর।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন