Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ফরিদপুরে সন্ত্রাসী হামলার পর নিরাপত্তাহীনতায় সংখ্যালঘু পরিবার

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০২০, ২:৪০ পিএম

বাছুরে ক্ষেতের আখ খাওয়ায় ফরিদপুরে একটি সংখ্যালঘু পরিবারে হামলা চালিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে ওই পরিবারের চারজনকে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত সুরেশ পাল (৪৫) ও তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী সুস্মিতা পাল (২৫) কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের মল্লিকপুরের পালপাড়ায় এ ঘটনায় ঘটেছে গত রোববার সন্ধার পর। এরপর থেকে থানায় মামলা করার জন্য ওই পরিবারকে অনবরত হুমকি দেয়া হচ্ছে।
তবে নির্যাতিত ওই পরিবারের পক্ষ হতে ঘটনার পরপরই কোতয়ালী থানার ওসি মোরশেদ আলমকে ফোন করে বিষয়টি জানানো হয়। এরপর ওসির নির্দেশে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয় থানায়। তবে বুধবার দুপুর পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলা না হওয়ায় শঙ্কিত পরিবারটি।
আহত সুরেশ পালের ভাই জিতেন পাল বলেন, রোববার বিকেলে তাদের বাছুর সলেমান বেপারীর আখ খেতের কয়েকটি পাতা খায়। এনিয়ে সলেমান বেপারী তার ভাই জগদীশের উপর চড়াও হয়ে শাষাতে থাকে। এরপর মিজান বেপারী (৩৮), রানা বেপারী (৩৫), হৃদয় বেপারী (৩৩) ও সুজায়েত (৩০) সহ আরো কয়েকজন বাড়িতে হুমকি দিতে থাকে। সন্ধার পর দলবল সহকারে এসে তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।
সন্ত্রাসীরা সুরেশ পালের মাথায় রামদা দিয়ে কোপ দিলে তিনি হাত দিয়ে সেটি ঠেকান। এসময় তার কপালে কোপ লাগে। আর সুস্মিতা পালের পায়ে হকিষ্টিক দিয়ে পিটিয়ে গুড়িয়ে দেয়। সুরেশ পালের স্ত্রী সবিতা পাল (৪০) ও ছেলে সমীর পাল (১৮) কে পিটিয়ে আহত করে। জিতেন পাল বলেন, তাদেরকে থানায় মামলা করলে দেশ ছাড়া করার হুমকি দেয়া হচ্ছে। আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি।
এব্যাপারে কোতয়ালী থানার ওসি মোরশেদ আলম বলেন, লিখিত অভিযোগ একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দিয়ে বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে। এব্যাপারে থানায় শিঘ্রই একটি মামলা রুজু করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সন্ত্রাসী হামলা


আরও
আরও পড়ুন