Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

স্বাধীন সিংহগুলো ঘুমাচ্ছে রাস্তায়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৩৮ এএম

কল্পনাকেও হার মানালো করোনাভাইরাস। আর এই করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী চলছে লকডাউন। আর এই লকডাউনের সুনসান নীরবতা বেশ উপভোগ করছে দক্ষিণ আফ্রিকার বৃহত্তম ক্রুজার জাতীয় পার্কের সিংহ দলসহ অন্যান্য প্রাণীরা।

মানুষজনের উৎপাত না থাকায় স্বাধীন মনে ঘোরাফেরা করছে এসব প্রাণী। শুধু তাই নয়, রাস্তায় এসে ঘুমিয়েও নিচ্ছে সিংহের দল।

টহলে গিয়ে বুধবার এমনই কিছু দৃশ্যধারণ করেছেন রিচার্ড সৌরি নামের এক বনরক্ষী। তাতে দেখা যাচ্ছে, রাস্তায় একদল সিংহ ঘুমাচ্ছে, সাধারণত রাস্তাটি সব সময় পর্যটকদের সমাগম থাকে। ক্রুজার পার্কের রাস্তায় সিংহ দলের ঘুমানোর ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল।
জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য, দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ হাজার ৫০০ ছাড়িয়েছে; মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১,৯৪৭ জন।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ২৩ মার্চ থেকে ২১ দিনের লকডাউন চলছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। এই লকডাউন সমর্থনে ২৫ মার্চ থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় দেশটির পার্কগুলো। সে সময় থেকে বন্ধ দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলে প্রায় সাড়ে ১৯ হাজার বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ক্রুজার পার্কও।

লকডাউনে ক্রুজার পার্কের পর্যটকহীন মূল রাস্তাগুলোতে এখন সিংহ ও অন্যান্য প্রাণী রাজত্ব। বনরক্ষী সৌরির তোলা ছবিগুলো তেমনটাই বলছে।

বনরক্ষী হিসেবে কাজ করায় লকডাউনেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বপালন করছেন সৌরি। বন্যপ্রাণীর দেখভাল, চোরাকারবারি থেকে রক্ষায় পাহারা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সেই সুবাদেই ক্রুজার পার্কের রাস্তায় সিংহের দলের ঘুমানোর দৃশ্য ক্যামেরাবন্দী করার সুযোগ হয় তার।

বুধবার বিকেলে পার্কের অরফান রেস্ট ক্যাম্পের পাশ দিয়ে গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার পর সৌরি দেখতে পান সিংহগুলো রাস্তায় বসে আছে, ঘুমাচ্ছে। তার মতে, পার্কে এটা অস্বাভাবিক ঘটনা।

দৃশ্যটি দেখেই সিংহগুলো থেকে মাত্র সাড়ে পাঁচ গজ দূর থেকে মোবাইল ফোনে অনেকগুলো ছবি তোলেন সৌরি। জানালেন, এ সময় সিংহগুলো মোটেও বিরক্ত হয়নি। দ্রুতই তারা ঘুমিয়ে যাচ্ছিল। সূত্র: বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দক্ষিণ আফ্রিকা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ