Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বুয়েটের ইঞ্জিনিয়ার নারী নেত্রীর কান্ডে তোলপাড়

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৫০ পিএম

বুয়েট থেকে পাস করা ইঞ্জিনিয়ার, নারী নেত্রী এবং নারীর অধিকার আদায়ে রাজপথে মিছিল করেন তিনি; অথচ ঘরে গৃহপরিচারিকাকে নির্দয়ভাবে পেটান। পাপিয়া আক্তার মিম নামের গৃহপরিচারিকাকে নির্দয় প্রহারের পর তিনি এখন রীতিমতো ভাইরাল। তোলপাড় চলছে বামপন্থীদের মধ্যে। শাহবাগের আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া সেই নারী নেত্রীর নাম সাইয়েদা সুলতানা এ্যানি। ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেত্রী, বুয়েটিয়ান ইঞ্জিনিয়ার এই নেত্রীর বিরুদ্ধে রাজধানীর উত্তরায় এক গৃহপরিচারিকাকে জিনিস নষ্টের অপবাদ ও জখম-নির্যাতনের পর বাসা থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনের শিকার হওয়া ওই তরুণী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অমানবিক ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন।

নির্যাতনকারী এ্যানি ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেত্রী, বুয়েটিয়ান ইঞ্জিনিয়ার ও বুয়েটের একটি হলের সাবেক ভিপি। তিনি নারীর অধিকার ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে শাহবাগের রাজপথ থেকে টেলিভিশন টকশোতে জ্বালাময়ী বক্তব্য দিয়ে থাকেন। গৃহপরিচারিকাকে নির্যাতনের ঘটনায় ওই এ্যানির শাস্তি দাবি করেছেন তার সহকর্মীরাই।

গৃহপরিচারিকা মিম নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে বলেন, উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ৭ নম্বর রোডের ৩৩ নম্বর বাসার ষষ্ঠ তলায় কাজ করতাম। অপর এক গৃহকর্মী কাজ করার সময় ফ্রিজে দাগ ফেলে দেয়। এতে বাসার মালিক আমার ওপর অপবাদ দেয় এবং আমাকে অনেক মারধর করে। একপর্যায়ে আমি প্রাণভয়ে বাড়ি থেকে বের হতে চাইলে তিনি আমাকে গেট লাগিেেয় আবার মারধর করেন। পরে অনেক কষ্ট করে কোনোরকম সেখান থেকে বের হয়ে আমি পুলিশের কাছে যাই।

নির্যাতিত তরুণীর পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা গেছে, সাইয়েদা সুলতানা এ্যানি অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও চড়াও হচ্ছেন ওই গৃহপরিচারিকার ওপর।
নির্যাতনের শিকার তরুণী ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘এই করোনার মহামারীতে মানুষ এমন হিংস্র কিভাবে হতে পারে। গরীব হয়ে জন্ম নিয়েছি বলে, বড় লোকদের হাতে মার খেয়ে চুপ থাকতে হচ্ছে। কারণ পুলিশ শুধু বড়লোকদের, আমি মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে ছোট একটা জবে ঢুকেছিলাম। এর মধ্যে করোনার জন্য চাকরি শেষ পর্যন্ত করতে পারিনি। ভাবলাম বসে থেকে কি হবে, এক পরিচিত ভাইয়ের মাধ্যমে এক বড়লোকের বাড়িতে একটা প্রতিবন্ধী মেয়ে দেখাশোনা করার জন্য যাই। সমান্য একটা ভুলের কারণে, যেই ভুলটা আমি করিনি, ফ্রিজ পরিষ্কার করা নিয়ে একটু দাগ হওয়ার কারণে, কাল থেকে আজ সকাল পর্যন্ত আমাকে আটকে রেখে এমন নির্যাতন করে। আমি বার বার বলছি ম্যাম আমাকে যেতে দেন। উনি পরে আমার একটা ভিডিও ধারণ করে, যেখানে আমাকে জোরপূর্বক বলতে বলে যে আমি উনার বাসা থেকে ইচ্ছাকৃত চলে যাচ্ছি। আমি মারের ভয়ে বলতে বাধ্য হয়েছি, তার পর আমি থানায় যাই। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি, পুলিশ আমার সাথে আসছে ঠিক কিন্তু, উনার সাথে ফোনে কথা বলে, আমাকে বলছে আপনি বাসায় যান। আমরা দেখছি বেপারটা। ---’।

ঘটনার প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ও গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক বাপ্পাদিত্য বসু ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ফ্রিজে দাগ লাগানোর অজুহাতে মিমকে জঘন্যভাবে মারধর করেন কমরেড এ্যানী। মিম কৌশলে কিছুটা ভিডিও করতে সক্ষম হয় তার সেলফোনে। মারধরের ছবিগুলো সব ওঠেনি, কিন্তু আর্তনাদ ও মারধরের শব্দগুলো পরিষ্কার। এক পর্যায়ে মিম চলে যেতে চান সে ফ্ল্যাট থেকে। কিন্তু দরজা আটকে রেখে আবার মারধর করেন কমরেড এ্যানী। এমনকি মিম চলে যাবার আগে, তাকে জোর করে বলতে বাধ্য করেন তেজস্বী কমরেড যে তিনি স্বেচ্ছায় চলে যাচ্ছেন। পাপিয়া আক্তার মিম এর ভিডিও ও ছবিতে কমরেড এ্যানীর ছবি পরিষ্কার। আহারে সুশীল, আহারে তার বামপন্থা, আহারে নারী অধিকার!!! আসুন, নির্যাতিতা মিমের পাশে দাঁড়াই। সোচ্চার হই। নাকি এবারও আপনি বামপন্থী গায়িকা কমরেড কৃষ্ণকলির বাসায় গৃহকর্মী জান্নাত আক্তার শিল্পী হত্যার সময় যেমন নিরব ছিলেন, তেমনই নিরব থাকবেন? আপনি কি প্রতিবাদটাও করবেন বেছে বেছে?’ মুন্না আমজাদ নামের একজন রাজপথের নারীর অধিকার আন্দোলনের নেত্রী এ্যানির মুখোশ উন্মোচন করার কথা বলেছেন। মিমের নির্যাতনের প্রতিবাদে আরো অনেকেই নানান মন্তব্য করেছেন এবং এ্যানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।



 

Show all comments
  • Sizan Shab ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৪ এএম says : 1
    এ-ই জন্য আমাদের দেশের এই অবস্থা
    Total Reply(0) Reply
  • Pidim Farhan Sami ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৫ এএম says : 0
    উম হুম খুব তো নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছিস, এবার নিজেই করলি নারী নির্যাতন, নিজের বুয়াকে পেটালি, আর কিই বা বলার আছে....
    Total Reply(0) Reply
  • Emran Hossain ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৫ এএম says : 0
    স‌ত্যি হ‌লে অবশ‌্যই শা‌স্তি হওয়া উ‌চিৎ
    Total Reply(0) Reply
  • Towheed Karim ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৫ এএম says : 1
    পচা বাম।দুর্গন্ধযুক্ত।
    Total Reply(0) Reply
  • Hannan Kabir ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৬ এএম says : 0
    এই সন্ধ্যায় ওকে গালি দিয়ে আমলনামা আর ভারী করলাম না । বাকিটা বুঝে নিয়েন।
    Total Reply(0) Reply
  • Sheikh Masud Rana ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৬ এএম says : 1
    এই বদমাইশ মহিলাকে চীনের উহানে পাঠানো হোক
    Total Reply(0) Reply
  • Motiur Rahman ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৬ এএম says : 1
    এইহলো এদের আসল আচার ব্যবহার যা জাতিকে জবরদস্তি করে শিক্ষাতে চাই এরা
    Total Reply(0) Reply
  • N Hoque Shobuz ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৬ এএম says : 1
    আমি সেই পুলিশের ও বিচার দাবি করছি, কারণ উনি অন্যায়ের সহায়ক ভূমিকা পালন করেছেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Omar Ali ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৭ এএম says : 1
    কথায় আছে না চোরের মায়ের বড় গলা লাফ দিয়ে খায় গাছের কলা
    Total Reply(0) Reply
  • Ruhul Amin ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১০:৩০ এএম says : 0
    দু একজন বাম ক্ষমতায় তাতে পুলিশ কাছে যাওয়ার সাহস পায় না। আর সমাবেশে বামদের মানবতার মায়াকান্না দেখলে মন বরে যায়, মুখে মধু অন্তরে বিষ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ৭:০৫ এএম says : 0
    আমি আমার প্রায় লেখাতেই লিখে আসছি আমাদের বংশধরেরা লিখাপড়া করে এবং ডিগ্রী হাছিল করে। তবে লেখাপড়া করে তারা শিক্ষিত হয়না এটাই আমি দেখে আসছি। তাদের লেখাপড়া করার একটাই উদ্দেশ্য সেটা হচ্ছে বড় বড় চাকুরী আর পকেট ভরা টাকা এটাই হচ্ছে তাদের লেখাপড়া করার একমাত্র উদ্দেশ্য। এখন এরা যদি প্রকৃত শিক্ষার প্রতিফলন ঘটাতে যায় তাহলে চাকুরী পাওয়া যাবে কিন্তু পকেট বানিজ্য হবে না তাই এনারা ডিগ্রী নেন শিক্ষত হন না। কিন্তু উন্নত দেশে লেখাপড়া করে শিক্ষিত হবার জন্যে, এনারা ইঞ্জিনিয়ার হয়ে বড় চাকুরী না পেলেও তারা আমাদের দেশের মত লিখাপড়া শিখে শিক্ষিত হয়ে ঘরে বসে থাকেনা যে কোন কজে তারা ঢুকে পরে কারন পড়াশুনা শেষ করে নির্ভরশীল হয়ে থাকতে চায়না। সেখান থেকে তারা আস্তে আস্তে নিজের শিক্ষার আলোকে বড় বড় চাকুরী পেয়ে যায়। এরা দেশের আইন মেনে চলে, মিথ্যা বলেনা, উপকার করতে পারলে করে দেয় কিন্তু কাওরও ক্ষতি করে না এটাই এদের শিক্ষা। মানুষেকে সম্মান দিতে এরা শিখেছে কিন্তু আমরা একে অপরকে সম্মান দিতে পারিনা এটাই আমাদের শিক্ষা। বাম দলের নেত্রী এ্যানি এতদিন মুখশ পরিধান করে মানুষকে ধোকা দিয়ে আসছিল এটাও তাঁর একটা অপশিক্ষা। নিজেকে নেত্রী বানিয়ে সমাজে সম্মানের সাথে বিচরণ করে আসছিল এখন তাঁর মুখশ উন্মোচন হয়েছে তাঁকে এখন তাঁর উপযুক্ত যায়গায় নিয়ে যেতে হবে, এজন্যে আবার মহিলা পুলিশের প্রয়োজন। দেখা যাক এই দুর্দিনে তাঁর কি ব্যাবস্থা পুলিশ নেয়... আমরা ইনকিলাব পত্রিকার সম্পাদক সাহেবকে অনুরোধ করব তিনি যেন এই ঘটে যাওয়া ঘটনার প্রতি ওনার নজর রাখেন আর আমদেরকে কোন কিছু পরিবর্তন হলেই জানন দেন। আমিন
    Total Reply(0) Reply
  • Helal Uddin. ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ৬:৪৭ এএম says : 1
    উনাকে কঠিন শাস্তি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • মাওলানা বিল্লাল হোছাইন ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ৭:০৪ এএম says : 0
    আপনি মানুষের প্রতি সদয় হন।নামাজ ধর্ম কর্ম করুন।প্রতিবন্ধী সন্তান সে কারনেও শান্ত থাকুন।আল্লাহ আপনাকে বিষম পরীক্ষা করছেন সর্তক হউণ।
    Total Reply(0) Reply
  • Mollah Md. Nurul Islam ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১০:৩৭ এএম says : 0
    মিসেস এনি। ভুলে যাবেননা আপনি এইবার মাফ পেয়ে যাবেন। আপনার বিরুদ্ধে মামলা হবে নারী নির্যাতনের কারনে। শয়তানি- বাটপার। তুই আবার রোডে নামিস নারী মুক্তির আন্দোলনে। শয়তান। অমানুষ। কুকুর। তোর উপর আল্লাহর লা'নত বর্ষিত হোক। অলৌকিকভাবে তোর উপর আল্লাহর গজব করোনা নেমে আসুক।
    Total Reply(0) Reply
  • Abdullah Al Mamun Rubel ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ৩:৩২ পিএম says : 0
    সত্যিই এই ঘটনাগুলো আমাদের কে খুব পীড়া দেয় । দূর থেকে যখন এই রকম নির্যাতিতের ঘটনা শুনি তখন খুব আফসোস-আক্ষেপ হয়,কেন ইসলামি আইনে এদের বিচার হয় না? সত্যি বলতে লজ্জা হয়,আমরা মুসলিম সংখ্যাগরিস্ঠ দেশ ঠিকই কিন্তুু আমরা ইসলামিক রাস্ট হতে পারি নাই। তাই সঠিক বিচারের অভাব। আল্লাহ তুমিই এদের বিচার কর।।
    Total Reply(0) Reply
  • M.A.Hashem, Academician, University of Sydney, Australia. ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১:২৭ পিএম says : 0
    So,miss Annie.I think its time for you to learn.Allah given you a handicapped child,instead beat other child,take care of yuor's one.It's time to learn something.May Allah forgive us ...
    Total Reply(0) Reply
  • ড. খঃ আব্দুল মালেক ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১:২৯ পিএম says : 0
    পুথিগত বিদ্যা অর্জন করলেই মানুষ হওয়া যায় না । পুঁথিগত বিদ্যা আর পর হস্ত ধন, নহে বিদ্যা নহে ধন হলে প্রয়োজন ।
    Total Reply(0) Reply
  • jack ali ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:১৪ পিএম says : 0
    May Allah wipe out these kind of people from our country. Ameen
    Total Reply(0) Reply
  • সামসুল হক ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ১:৪২ পিএম says : 0
    আমি তার সঠিক বিচার চাই,পুলিস কখনো বিচার করেনা বিচার করে আইন,পুলিস!!!!
    Total Reply(0) Reply
  • Abdullah Al Mamun Rubel ১৮ এপ্রিল, ২০২০, ৩:৩৫ পিএম says : 0
    সত্যিই এই ঘটনাগুলো আমাদের কে খুব পীড়া দেয় । দূর থেকে যখন এই রকম নির্যাতিতের ঘটনা শুনি তখন খুব আফসোস-আক্ষেপ হয়,কেন ইসলামি আইনে এদের বিচার হয় না? সত্যি বলতে লজ্জা হয়,আমরা মুসলিম সংখ্যাগরিস্ঠ দেশ ঠিকই কিন্তুু আমরা ইসলামিক রাস্ট হতে পারি নাই। তাই সঠিক বিচারের অভাব। আল্লাহ তুমিই এদের বিচার কর।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নারী

১৯ নভেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন