Inqilab Logo

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

‘নতুন চুক্তিতে রাজি মেসির বাবা’

প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : লিওনেল মেসির সাথে বার্সেলোনার চুক্তির মেয়াদ ২০১৮ সাল পর্যন্ত। মেয়াদ অরো বাড়াতে চায় ন্যু ক্যাম্পের ক্লাবটি। এজন্য মেসির বাবার সাথে পাকাপাকিভাবে কথাও বলেছে বার্সা। এ বিষয়ে অবশ্য এখনো আনুষ্ঠানিক কোন ঘোষণা আসেনি, তবে এমনটিই দাবি করেছে স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো। স্প্যানিশ দৈনিক মুন্টো দিপোর্তিভোর ভাষ্য, চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য বার্সেলোনার প্রস্তাবে রাজিও হয়েছেন মেসির বাবা।
মেসির সাথে আরেক আর্জেন্টাইন হাভিয়ের মাচেরানোর চুক্তির মেয়াদও শেষ হবে ২০১৮ সালে। ৩২ বছর বয়সী ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের ব্যাপারে অবশ্য কিছু জানা যায়নি। গত মাসেই বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমিউ জানিয়েছিলেন, ‘মেসির সাথে আমারা চুক্তিটা নবায়ন করতে চাই, একই সাথে আমরা দলের বেশ কিছু খেলোয়াড়কেও রাখতে তাদের চুক্তির মেয়াদ বাড়াব।’ ইতোমধ্যেই স্পেন জাতীয় দলের ভিয়ারিয়াল মিডফিল্ডার ডেনিস সুয়ারেজ এবং দুই ফরাসি ডিয়েন্ডার লুকাস দিনিয়া ও স্যামুয়েল উমিতিকে কিনেছে বার্সা। এছাড়া অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের তরুণ ফরোয়ার্ড লুসিয়ানো ভিয়েত্তোর সাথে চুক্তিটাও সম্পন্নের কাছাকাছি।
মেসির সাথে অপর দুই সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ ও নেইমারকে নিয়ে গঠিত বার্সার আক্রমণ ভাগকে বলা হয় বর্তমান বিশ্বের সেরা আক্রমণ ভাগ। কিছুদিন আগে বার্সার সাথে ৫ বছরের চুক্তি কথা জানান নেইমার।
বাকি দুই মৌসুমেও বার্সার সর্বোচ্চ বেতনপ্রাপ্ত খেলোয়াড় হিসেবেই থাকবেন মেসি। দলে তার থাকার গুরুত্বও অবর্ণনীয়। চারবারের ব্যালেন ডি’অর জয়ীও চাইবেন বার্সায় থেকেই রিয়াল মাদ্রিদের কাছ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মুকুট ছিনিয়ে নিজেদের মাথায় তুলতে। তিনি নিজেও এর আগে অনেকবারই বলেছেন, বার্সায় থেকেই নিজের ক্যারিয়ার শেষ করতে চান। তবে ক্যারিয়ারের শেষ লগ্নে একটিবার হলেও স্বদেশে ফেরার কথাও বলেছেন বহুবার।
বার্সার দিক থেকেও অন্তত বেতন-ভাতা নিয়ে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। দিনকে দিন বার্সার সিন্দুকে যে বিশাল অঙ্কের অর্থ জমা হচ্ছে তার অন্যতম প্রধাণ কারণই তো দলের লিওনেল মেসির উপস্থিতি। এবছরও রেকর্ড ৬৭০ মিলিয়ন ইউরো আয় করেছে ক্লাবটি। গেলবারের চেয়ে যা ৬২ মিলিয়ন ইউরো বেশি। এছাড়া, নাইকির সাথে ১৫৫ মিলিয়ন ইউরোর চুক্তি করেছে বার্সা, এই চুক্তি কার্যকর হবে ২০১৮ সাল থেকে।
ব্যক্তিগতভাবে সময়টা একদম ভলো যাচ্ছে না মেসির। কোপা আমেরিকার ফাইনালের সেই হতাশা গদগদে থাকতেই শুনতে হয়েছে কর সংক্রান্ত মামলার সেই রায়। ২১ মাসের জেল দেয়া হয় আর্জেন্টাইন তারকাকে। কিন্তু স্প্যানিশ আইন অনুযায়ী ২৪ মাসের কম সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে জেলে যেতে হয় না। তবে জরিমানার টাকা ঠিকই পরিশোধ করেতে হবে তাকে। এতসব ঝামেলা ভুলে থাকতে এখন ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ ইবিজায় অবসর যাপন করছেন বার্সা মহাতারকা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ‘নতুন চুক্তিতে রাজি মেসির বাবা’
আরও পড়ুন