Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পাটকলসহ সর্বস্তরে শ্রমিকদের সরকারি সহায়তায় চার প্রস্তাব খুলনা বিএনপির

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০২০, ৩:১৫ পিএম

নভেল করোনাভাইরাসে তিন সপ্তাহ লকডাউনে মানবেতর জীবন-যাপন করছে খুলনা অঞ্চলের নয়টি পাটকলের ৩০ সহ¯্রাধিক পাটকল শ্রমিক। অবিলম্বে পাটকল শ্রমিকদের পাওনা মিটিয়ে দেবার দাবি জানিয়েছে খুলনা মহানগর বিএনপি। এক বিবৃতিতে মহানগর বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান।

প্রদত্ত বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, করোনাভাইরাসে ২৪ মার্চ সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি ঘোষণার পূর্বে পাটকল শ্রমিকরা ১১ সপ্তাহের বকেয়া পাওনার সাথে সন্ধ্যাকালীন তিন সপ্তাহ মোট ১৪ সপ্তাহ মজুর না পাওয়ায় অনাহারে অর্ধাহারে পরিবার-পরিজন নিয়ে নিদারুন কষ্টে দিন কাটচ্ছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী একাধিকবার বক্তব্যে সকল সেক্টরে প্রণোদনার আশ্বাস দিলেও পাটকল শ্রমিকদের ব্যাপারে কোন ঘোষণা না আসায় হতাশ হয়েছেন পাটকল শ্রমিকরা।
নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের দেয়া ত্রাণ সামগ্রী বন্টন প্রক্রিয়ায় খালিশপুরের পাটকল এলাকা, আটরা শিল্প অঞ্চল, দিঘলিয়া ও নওয়াপাড়া পাটকল এলাকায় কোন ছোঁয়া লাগেনি। এসব এলাকায় কোন বিশেষ বরাদ্দ না থাকায় এমনকি ১০ টাকায় চাল বিক্রির ওএমএস বন্ধ থাকায় শ্রমিকরা আরও বড় ধরণের সংকটে পড়েছে। দেশের এই বৃহৎ পাটকল শ্রমিকদের চলমান সমস্যা সমাধানে আহ্বান জানিয়েছে দলটি। ক) জেলা প্রশাসনকে দেশের প্রধানমন্ত্রীর বরাবর জরুরি বার্তা পাঠিয়ে পাটকল শ্রমিকদের বিদ্যমান সমস্যা অবহিত করার পদক্ষেপ নেয়া। খ) অতিদ্রুত পাটকল শ্রমিকদের ১৪ সপ্তাহ বকেয়া মজুরি পরিশোধের ব্যবস্থা করা। গ) পাটশিল্প এলাকায় বিশেষ বরাদ্দ দিয়ে পর্যাপ্ত ত্রাণের ব্যবস্থা করা। সেক্ষেত্রে ত্রাণ বন্টন প্রক্রিয়া সরকারি দলকে সম্পৃক্ত না করে সেনাবাহিনীর উপর দায়িত্ব দেয়া। ঘ) পাটকল শিল্প এলাকায় ১০ টাকা কেজি ধরে ওএমএস’র চাল বিক্রির পদক্ষেপ গ্রহণ করা।
বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বন্দর ও শিল্প নগরী সেক্টরভিত্তিক শ্রমিকদের জন্য যেমন মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প, ইজিবাইক ও রিকশা চালক, ফুটপাত হকার, দিনমজুর, হ্যান্ডলিং শ্রমিকদের আলাদা আলাদাভাবে তালিকা করে ত্রাণ বন্টন করার জোর দাবি জানিয়েছেন। বিবৃতিদাতারা হলেন বিএনপি’র চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা এম নুরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খুলনা


আরও
আরও পড়ুন