Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

বরিসের অবহেলায় বেড়েছে করোনা সংক্রমণ, রিপোর্টে দাবি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০২০, ৫:৩৪ পিএম

করোনা সংক্রান্ত পাঁচ-পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ কোবরা বৈঠকে যোগ না দিয়ে উল্টে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সেই সময়ে অন্তঃসত্ত্বা সঙ্গিনী ক্যারি সাইমন্ডসের সঙ্গে ১২ দিনের জন্য ছুটি কাটাতে চলে গিয়েছিলেন। দেশ জুড়ে করোনা-সঙ্কটের মধ্যে এমন চাঞ্চল্যকর দাবিই প্রকাশ করেছে ব্রিটেনের একটি দৈনিক।

দৈনিকটির অভিযোগ, বরিস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি সপ্তাহ হেলায় নষ্ট করেছেন। ওই রিপোর্টে দাবি, ২৪ জানুয়ারি চীন থেকে অন্তত ছ’টি দেশে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাস। সে সময়ে ব্রিটিশ সরকার প্রথম বৈঠক ডাকে। তাতে না গিয়ে ১০, ডাউনিং স্ট্রিটে চীনা দূতের সঙ্গে চীনা নববর্ষ উদ্‌যাপনে ব্যস্ত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তার অনেক বেশি চিন্তা তখন চুক্তিহীন ব্রেক্সিট উতরে যাওয়া নিয়ে। সমালোচনার মুখে ক্যাবিনেট অফিসের মন্ত্রী মাইকেল গোভ জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে যোগ না দেওয়ার দাবি একেবারেই ভিত্তিহীন। ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২০ হাজারের উপরে।

জানুয়ারির শুরুর দিকেই লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের অধ্যাপক নিল ফার্গুসন জানিয়েছিলেন, এই ভাইরাস এক জনের শরীর থেকে ছড়াতে পারে অন্তত তিন জনের শরীরে। জানুয়ারি থেকে মার্চ, অন্তত ১ লাখ ৯০ হাজার মানুষ উহান থেকে ব্রিটেনে এসেছেন বলে দাবি। মনে করা হচ্ছে, তাদের মধ্যে ১ হাজার ৯০০ জন সে সময় সংক্রমিত হন। ২৯ জানুয়ারি ব্রিটেনে প্রথম দু’টি সংক্রমণের খবর মেলে। ইয়র্কশায়ারেরর একটি হোটেলে অসুস্থ হন দুই চীনা নাগরিক।

ফ্রেব্রুয়ারিতে প্রেমিকার সঙ্গে কেন্টে ১২ দিনের ছুটি কাটাতে চলে যান বরিস। সে সময়ে পরপর কোবরা বৈঠক হয়ে যায় তাকে ছাড়াই। ফলে অনেক সিদ্ধান্ত কার্যকর করা যায়নি। অভিযোগ, করোনাকে সাধারণ ফ্লু বলে মনে করা হয়েছিল। মার্চের মধ্যে গোটা লন্ডনে ছড়িয়ে যায় ভাইরাস। তখনও অন্তত ৩০ লাখ মানুষ রোজ বাইরে বেরিয়েছে‌ন। মার্চের শুরুতে বরিস জানিয়েছেন, তিনি হাসপাতালে করোনা আক্রান্তদের স‌ঙ্গেও করমর্দন করেছেন! অবশেষে ২৩ মার্চ লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। তত দিনে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। তিনি নিজেও আক্রান্ত হয়েছেন। সূত্র: এবিসি নিউজ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ